• ঢাকা
  • বুধবার, ২৬ জুন, ২০২৪, ১১ আষাঢ় ১৪৩১,

শরীরে ইউরিক অ্যাসিড নিয়ন্ত্রণে যা খাবেন


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: আগস্ট ১৯, ২০২১, ১১:৩৯ এএম
শরীরে ইউরিক অ্যাসিড নিয়ন্ত্রণে যা খাবেন

ইউরিক অ্যাসিড শরীরের প্রাকৃতিক বর্জ্য, যা প্রতিদিন তৈরি হয়। এটি পিউরিন নামক রাসায়নিক থেকে শরীরে আসে। যা দেহে প্রাকৃতিক কোষ ভাঙনের কারণে তৈরি হয়। সবার দেহেই ইউরিক অ্যাসিড তৈরি হয়। এটি নিয়ন্ত্রণহীন হলে নানা রোগের দেখা দেয়।

নারীদের ক্ষেত্রে স্বাভাবিক ইউরিক অ্যাসিডের মাত্রা ২-৬ এবং পুরুষদের ক্ষেত্রে স্বাভাবিক মাত্রা ৩-৭। সাধারণত খাবারের অনিয়ম, অগোছালো জীবনযাত্রায় শরীরের পাচনতন্ত্রের নানা গোলযোগ ঘটে। যা থেকে শরীরে ইউরিক অ্যাসিড বেড়ে যায়।

পুষ্টিবিদরা জানান, শরীর বর্জ্য পদার্থগুলো কার্যকরভাবে পরিষ্কার করতে সক্ষম না হলে ইউরিক অ্যাসিডের মাত্রা বৃদ্ধি পায়। এতে কিডনি সুস্থভাবে কাজ করে না। তাই ইউরিক অ্যাসিড অবশ্যই কন্ট্রোলে রাখা উচিত।

প্রতিদিন ব্যায়াম, নিয়মিত খাদ্য গ্রহণ, ধূমপান ও মদ্যপান পরিহার, প্যাকেটজাত খাবার কম খাওয়া, একটু পরপর খাওয়া, বেশিক্ষণ এক জায়গায় বসে না থাকা এবং পর্যাপ্ত ঘুম ইউরিক অ্যাসিড নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করে।

শরীরে ইউরিক অ্যাসিড নিয়ন্ত্রণে কী কী খাবার খাওয়া যাবে তা জানাব এই আয়োজনে।

  • পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি পান করতে হবে। দিনের বেলায় বেশি পানি পান করুন। অন্যদিকে রাতে তুলনামূলক কম পানি পান করবেন।
  • তাজা ও মৌসুমি ফল খাবেন। এটি আপনার শরীরকে হাইড্রেটেড রাখবে। প্রতিদিন কলা খাওয়ার অভ্যাস করুন।
  • দুধ, দই এবং বাটার মিল্ক নিয়মিত খেলে ইউরিক অ্যাসিড কমে। এগুলো ডায়েটে যোগ করে নিন। প্রতিদিন একবার কিশমিশের সঙ্গে দই খেলে উপকার পাবেন। বাটারমিল্ক শরীরকে হাইড্রেটেড রাখে। নিয়মিত খেলে আপনার পেশি এবং জয়েন্টের ব্যথাও কমবে।
  • প্রতিদিন খাদ্যতালিকায় এক মুঠো বাদাম রাখবেন। এতে ইউরিক অ্যাসিডের মাত্রা কমে যাবে।
  • ডাল রান্নার আগে ভিজিয়ে রাখুন।সঠিকভাবে অঙ্কুরিত হলে এরপর রান্না করুন।
  • প্রতিদিন এক গ্লাস দুধে একচামচ হলুদ মিশিয়ে পান করুন।
  • পালং শাক নির্দিষ্ট অনুপাতে খাবেন।
  • নিয়মিত ডিম খেতে পারেন।
  • মাংস এবং মাছ আপনার ইউরিক অ্যাসিডের মাত্রা বাড়াবে না। সপ্তাহে দুই থেকে তিন দিন মাংস খেতে পারেন।
  • ব্যায়াম করলে হাই প্রোটিনযুক্ত খাবার খাবেন।

 

সূত্র: হেলথ টক

Link copied!