• ঢাকা
  • সোমবার, ২০ মে, ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১,
ক্রিকেট

টিকিট পেতে মিরপুরে উপচে পড়া ভিড়


সংবাদ প্রকাশ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: নভেম্বর ১৮, ২০২১, ০৫:৩৩ পিএম

করোনার সংক্রমণের কারণে দীর্ঘ ২১ মাস পর গ্যালারিতে বসে খেলা দেখার সুযোগ পাচ্ছেন ক্রিকেটপ্রেমীরা। শুক্রবার (১৯ নভেম্বর) অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ-পাকিস্তান টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচ। গ্যালারিতে বসে প্রিয় দলের খেলা দেখতে বৃহস্পতিবার (১৮ নভেম্বর) সকাল থেকে মিরপুরে ছিল টিকিট প্রত্যাশীদের উপচে পড়া ভিড়। সেই সঙ্গে ছিল টিকেট নিয়ে নানা অনিয়মের অভিযোগ।

বৃহস্পতিবার সকালে মিরপুর ১০ নম্বরে অবস্থিত শহীদ সোহরাওয়ার্দী ইনডোর স্টেডিয়ামে গিয়ে দেখা যায়, কাউন্টারের দুইপাশে টিকিট প্রত্যাশীদের দীর্ঘ সারি। সকাল ৯টা থেকে বিক্রি শুরু হলেও টিকিট প্রত্যাশীরা লাইনে দাঁড়ান ঘণ্টাখানেক আগে থেকে। মাত্র দুটি বুথে টিকিট দেওয়ায় একেকজনের টিকিট পেতে কয়েক ঘণ্টা লেগে যায়। দুপুর দেড়টার মধ্যে প্রথম দিনের অর্থাৎ শুক্রবারের টিকেট শেষ হয়ে যাওয়ায় অনেকে কাঙ্ক্ষিত দিনের টিকিট না পেয়ে ফিরে যেতে হয়।

এদিকে নারীদের লাইন ছিল তুলনামূলক ছোট। তাই অনেককেই একধিকবার টিকিট নিতে দেখা গেছে। আবার কালোবাজারিদেরও দেখা গেছে কাউন্টারের আশেপাশে কয়েকগুণ অতিরিক্ত দামে টিকিট বিক্রি করতে। এসব কালোবাজারিরা বাসা বাড়ির নারী পরিচ্ছন্নতাকর্মী ও পথশিশুদের লাইনে দাঁড় করিয়ে টিকিট ক্রয় করছেন। তারপর সেগুলো বাইরে বিক্রি করছেন।

টিকেটের লাইনে দাঁড়ানো সমীর নামের এক চাকরিজীবী বলেন, “আমি পৌনে ১১টায় লাইনে দাঁড়িয়েছি, এখন বাজে পৌনে দুইটা। আরো কতক্ষণ লাগবে কাউন্টার পর্যন্ত যেতে বুঝতে পারছি না। আবার কাউন্টারে গেলেই যে টিকিট পাবো তারও কোনো নিশ্চয়তা নেই। যদি পাই তাহলে সেটি আমার ভাগ্য। অথচ কালোবাজারিরা ঠিকই কয়েকটি করে টিকিট পাচ্ছে এবং সেগুলো কয়েকগুণ বেশি দামে বিক্রি করছে।”

নিরব নামের আরেক টিকিট প্রত্যাশী বলেন, “আমরা ঘণ্টার পর ঘণ্টা লাইনে দাঁড়িয়ে টিকিট পাচ্ছি না। কিন্তু মহিলারা একবার টিকিট নিয়ে আবার লাইনে দাঁড়াচ্ছে। একেকজন তিন-চারবারও লাইনে দাঁড়াচ্ছে। আবার ব্ল্যাকে ১০০ টাকার টিকিট ৩০০, ৩০০ টাকার টিকিট ৫০০-৭০০ টাকায় বিক্রি করছে। ক্রিকেট আমাদের একটি আবেগের জায়গা। এখানেও দুর্নীতি। আমার লাইনে দাঁড়িয়ে খেলা দেখতে পারবো না, অন্যরা অবৈধভাবে খেলা দেখবে, এটাতো হতে পারে না।”

নারীদের লাইনে গিয়ে সত্যিই দেখা যায় বয়োবৃদ্ধ এবং শিশুরা লাইনে দাঁড়িয়েছে। কয়েকজন বৃদ্ধ নারীকে কার জন্য টিকিট নিচ্ছেন জিজ্ঞেস করলে, কেউ ছেলে, কেউ ভাই, কেউ প্রতিবেশীর জন্য টিকেট নেওয়ার কথা জানান। অনেকে আবার একাধিক টিকিট নেওয়ার কথাও স্বীকার করেন।

করোনার সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আসায় দর্শকদের গ্যালারিতে বসে খেলা দেখার সুযোগ দিচ্ছে বিসিবি। তবে ধারণ ক্ষমতার অর্ধেক টিকিট বিক্রি করা হবে। পাশাপাশি দুই ডোজ করোনার টিকা নিয়েছেন এমন ব্যক্তিরাই সনদ প্রদর্শন সাপেক্ষে খেলা দেখার সুযোগ পাবেন। একজন ব্যক্তি মাত্র একটি করেই টিকিট কিনতে পারবেন। মোট ৫টি ক্যাটাগরিতে টিকিট পাওয়া যাচ্ছে। সর্বনিম্ন ইস্টার্ন স্ট্যান্ড গ্যালারির টিকিট পাওয়া যাচ্ছে ১০০ টাকায়। আর সর্বোচ্চ গ্র্যান্ড স্ট্যান্ড গ্যালারির টিকিট পাওয়া যাচ্ছে ১০০০ টাকায়। এছাড়া ভিআইপি স্ট্যান্ড গ্যালারির টিকিটের মূল্য ৫০০ টাকা, ক্লাব হাউজ গ্যালারির টিকিটের মূল ৩০০ টাকা ও সাউদার্ন-নর্দার্ন স্ট্যান্ড গ্যালারির টিকিটের মূল্য নেওয়া হচ্ছে ১৫০ টাকা।

Link copied!