• ঢাকা
  • বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ৮ ফাল্গুন ১৪৩০, ১০ শা’বান ১৪৪৫

দোসা মুচমুচে করবেন কীভাবে?


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: আগস্ট ২২, ২০২৩, ০৫:২৪ পিএম
দোসা মুচমুচে করবেন কীভাবে?

বিদেশি খাবার দোসা আমাদের দেশেও বেশ জনপ্রিয়। নিরামিষ কিংবা ছোলার সঙ্গেও খেতেও বেশ স্বাদ লাগে দোসা। বাইরে গিয়ে তো খাওয়া হয়ই, অনেকে আবার শখ করে বাড়িতেই তৈরি করতে চান। কিন্তু দোকানের মত মুচমুচে হয না বলে আশা ছেড়ে দেন। কিছু টেকনিক জানা থাকলে কিন্তু এ সমস্যা আর হবে না। চলুন জেনে নিই-

সঠিক পরিমাপ
দোসা বানানোর সময়ে বিউলির ডাল ও চাল সঠিক পরিমাণে নেওয়া জরুরি। ৪ কাপ চাল নিলে ১ কাপ ডাল নিতে হবে। পরিমাণ ঠিক না হলে কিন্তু দোসা ভালো হবে না। শুধু তা-ই নয়, চাল-ডাল মিক্সিতে ঘুরিয়ে ঘোল বানানোর সময়ে পানির পরিমাণ নিয়েও সতর্ক থাকতে হবে।

বড় পাত্র নিতে হবে
চাল-ডালের মিশ্রণটি ভেজানোর সময় একটি বড় পাত্র বেছে নিন। ছোট পাত্রে বেছে নেবেন না। চাল-ডাল যেন ভালো ভাবে পানি টেনে নিতে পারে, সেদিকে খেয়াল দিতে হবে।

মিশ্রণটি মজতে সময় দিন
চাল-ডাল বেটে নেওয়ার পর মিশ্রণটিকে পর্যাপ্ত সময় নিয়ে মজতে দিতে হবে। গরম থাকলে সূর্যের আলো আসে এমন জায়গায় অন্তত ৬ ঘণ্টা রেখে দিন, আর পরিবেশ ঠান্ডা হলে অন্তত ১২-১৫ ঘণ্টা বাটা মিশ্রণটি রেখে দিতে হবে।

মিশ্রণটি ফ্রিজে রাখবেন না
দোসার মিশ্রণটি ভুলেও ফ্রিজে রাখবেন না। ফ্রিজে রেখে দিলে মিশ্রণ ভালোভাবে মজবে না, তাই দোসায় দোকানের মতো টক ভাব আসবে না। ঘরের তাপমাত্রাতেই মিশ্রণটি রাখতে সেটি ভাল মজবে।

গরম তাওয়া
দোসা বানানোর সময় তাওয়াটি খুব ভালো করে গরম করে নিতে হবে। গরম তাওয়ায় খানিকটা ঠান্ডা পানি ছিটিয়ে ভালো করে মুছে নিন। তারপর পরিমিত মিশ্রণ নিয়ে ভালো করে তাওয়ায় ছড়িয়ে নিতে হবে, খেয়াল রাখবেন যেন দোসাটি খুব পাতলা হয়।
এভাবেই তৈরি করে নিতে পারেন মুচমুচে দোসা।

Link copied!