বিস্কিট ছেড়ে সমুসায় ঝুঁকছেন ব্রিটিশ তরুণরা


কর্ডেলিয়া বিশ্বাস
প্রকাশিত: জানুয়ারি ২৩, ২০২৩, ০৬:৫০ পিএম
বিস্কিট ছেড়ে সমুসায় ঝুঁকছেন ব্রিটিশ তরুণরা

বিশ্বজুড়ে ব্রিটিশরা চা প্রিয় জাতি হিসেবে পরিচিত। সেই বিশ্বজয়ী ব্রিটিশ সাম্রাজ্যের স্বর্ণযুগ থেকেই চা-বিস্কিট তাদের ঐতিহ্যের অংশ হয়ে গেছে। অভিজাত ব্রিটিশদের সকালের চায়ের সঙ্গে সাধারণত কাস্টার্ড ক্রিম বা বোরবন বিস্কিট থাকতোই। কিন্তু তাদের সেই ঐতিহ্যে হানা দিয়েছে সমুচা।

সম্প্রতি এক গবেষণায় দেখা গেছে ব্রিটিশ তরুণরা চায়ের সঙ্গে বিস্কিটের বদলে সমুচার মতো স্ন্যানকস খেতে বেশি পছন্দ করেন। অর্থাৎ ব্রিটিশদের নাস্তার টেবিলে জায়গা করে নিচ্ছে সমুসা। হারিয়ে যাচ্ছে তাদের চা-বিস্কিট ঐতিহ্য।

বাজার গবেষণা প্রতিষ্ঠান ‘মিনটেল’ জানিয়েছে, তরুণদের এই খাদ্যাভ্যাস বিস্কিট বিক্রিতে মারাত্মক নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে। তারা আরও জানিয়েছে, পঞ্চাশোর্ধ যত মানুষ চায়ের সঙ্গে বিস্কিট রাখেন, ১৬ থেকে ২৪ বছর বয়সীদের মধ্যে এ প্রবণতা তার অর্ধেক।

চা পান করেন, এমন ১ হাজার ব্যক্তির ওপর সমীক্ষা চালায় যুক্তরাজ্যের চা ও পানীয় অ্যাসোসিয়েশন (ইউকেটিআইএ)। এ সমীক্ষায় দেখা গেছে, প্রতি ১০ জন তরুণের মধ্যে মাত্র ৪ জন চায়ের সঙ্গে বিস্কিট রাখেন। অন্যদিকে ৫ জনের একজন চায়ের সঙ্গে এক টুকরো ফল রাখেন। এদিকে ১৮ থেকে ২৯ বছর বয়সীরা চায়ের সঙ্গে সমুসা বা গ্রানোলা বারই বেশি রাখেন।

ইউকেটিআইএর প্রধান নির্বাহী ড. শ্যারন হল ডেইলি টেলিগ্রাফকে জানান, এখন মানুষ নাস্তায় বিশেষ কিছু চাচ্ছে। তারা বাদাম ও মসলাদার খাবারের দিকে ঝুঁকছে। যেটা তারা গ্রানোলা বার ও সমুসার মধ্যে পাচ্ছে।

সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া।

Link copied!