• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২৪ মে, ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৫ জ্বিলকদ ১৪৪৫

গরমে যেসব খাবারে স্বস্তি মিলবে


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: এপ্রিল ২০, ২০২৪, ০৬:৪১ পিএম
গরমে যেসব খাবারে স্বস্তি মিলবে
গরমে যেসব খাবারে স্বস্তি মিলবে। ছবিঃ সংগৃহীত

সারাদেশে প্রচন্ড গরম। তীব্র গরমে ঘামছে মানুষ। ঘামের সঙ্গে বের হয়ে যাচ্ছে দেহের অনেক গুরুত্বপূর্ণ খনিজ উপাদান। ফলে দেহে পানিশূন্যতা যেমন তৈরি হচ্ছে তেমনি দেখা দিচ্ছে নানা উপাদানের ঘাটতি। তাই এসময় এসব ঘাটতি দূর করতে খেতে হবে বিভিন্ন রকম ফলের শরবত। তাতেই মিলবে স্বস্তি। এছাড়া শাকসবজি, ফলমূল,ভিটামিন সি আছে এমন খাবার বেশি বেশি খাওয়া উচিত।

  • স্টার্চ হল একটি পলিস্যাকারাইড এবং প্রচুর পরিমাণে খাদ্যশস্য (গম, ভুট্টা, চাল), আলু এবং খাদ্যশস্যের আটার উপর ভিত্তি করে প্রক্রিয়াজাত খাবার , যেমন রুটি , পিজ্জা বা পাস্তা। গরমে শরীর ঠান্ডা রাখতে এবং দেহে পানি ধরে রাখতে সাহায্য করে। এ ছাড়া ইসবগুল, চিয়া সিড, তোকমা দানা, বার্লি এগুলোর ওজনের তিন গুণ পানি শোষণ করে দেহ ঠান্ডা রাখে।  এধণের খাবার বেশি বেশি খেতে হবে।
  • লাল চাল, লাল আটা বা এগুলো থেকে তৈরি খাবার, দানা ও বিচি জাতীয় খাবার জটিল শর্করার অন্তর্ভুক্ত। এটি আমাদের জন্য অনেক বেশি জরুরি। জটিল শর্করায় রক্তে সুগার বৃদ্ধির আশঙ্কা কম। এতে শরীরের প্রয়োজনীয় ভিটামিন, খনিজ ও ফাইবার মিলবে।
  • শরীর অনেকক্ষণ ঠান্ডা রাখতে তরমুজ, নাশপাতি, ডালিম, আপেল, পাকা পেঁপে, ঘরে তৈরি আখের রস, আঙুর, আনারস, কমলা, মাল্টা, স্ট্রবেরি বেশি খেতে হবে। তবে ফলের রস খাওয়ার সময় সঙ্গে এক টেবিল চামচ তোকমা বা ইসবগুল মিশিয়ে খান; সেটা আরও বেশি স্বাস্থ্যকর।
  • উপকারী ব্যাকটিরিয়ার সমতা বজায় রেখে শরীর সুস্থ রাখতে ও ইমিউনিটি বাড়াতে  সাহায্য করে প্রোবায়োটিক। তাই প্রোবায়োটিক (উপকারী ব্যাকটেরিয়া) সমৃদ্ধ খাবার, যেমন টক দই, মাঠা, আপেল, ইসবগুল বেশি খেতে হবে।
  • যেসব সবজিতে পানি বেশি, যেমন লাউ, পেঁপে, চালকুমড়া, পটল, চিচিঙ্গা, শসা, টমেটো, ধুন্দল—বেশি খেতে হবে। আবার ফুলকপি, বাঁধাকপি, ব্রকলিতে পানির পরিমাণ প্রায় ৯১-৯২ শতাংশ। তাই এসব সবজিও প্রাধান্য দিতে হবে।
  • এ সময় ভিটামিন সি-সমৃদ্ধ টক ফল ও সবজি, যেমন কমলা, মাল্টা, আনারস, পেয়ারা, ক্যাপসিকাম বেশ ভালো কাজে দেয়। এ ছাড়া গরম স্যুপ, গ্রিন টি, তুলসী চা, আদা চা বা যেকোনো হারবাল চা সর্দি, কাশি, গলাব্যথা নিরাময়ে বেশ কার্যকর।
  • দারুচিনি, রসুন, কালিজিরা, আদা এগুলোতে রয়েছে প্রাকৃতিক অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল ও অ্যান্টিইনফ্ল্যামেটরি উপাদান। এগুলো সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াই করে। গরমে প্রস্রাবের সংক্রমণ খুব হয়। তাই এসময় অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল উপাদান আছে এমন খাবার খেতে হবে।
Link copied!