• ঢাকা
  • সোমবার, ১৫ এপ্রিল, ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১,

কাচ্চি খেতে গিয়ে দুই সন্তানসহ প্রাণ গেলো মায়ের


সংবাদ প্রকাশ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: মার্চ ১, ২০২৪, ০৮:৪৮ এএম
কাচ্চি খেতে গিয়ে দুই সন্তানসহ প্রাণ গেলো মায়ের
মায়ের সঙ্গে কাচ্চি খেতে গিয়েছিল আদিতা ও সান। ছবি : সংগৃহীত

রাজধানীর বেইলি রোডে বহুতল ভবনে লাগা আগুনে পুড়ে মারা গেছেন পপি রায় (৩৫), তার মেয়ে আদিতা রায় (১২) এবং ছেলে সান রায় (৮)। দুই সন্তানসহ ভবনটিতে থাকা কাচ্চি ভাই রেস্টুরেন্টে ছিলেন পপি।

পপির ভাই পীযূষ পোদ্দারের জানান, ভাগনি সম্পূর্ণা পড়ত সিদ্ধেশ্বরী গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজে ষষ্ঠ শ্রেণিতে। আর সান রায় পড়ত উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুল অ্যান্ড কলেজের চতুর্থ শ্রেণিতে। মা–বাবার সঙ্গে মালিবাগে থাকত তারা।

নিহতের স্বজনরা জানান, দুই সন্তানকে নিয়ে রেস্টুরেন্টটিতে কাচ্চি খেতে গিয়েছিলেন পপি রায়। ভবনে লাগা আগুনে পুড়ে পপিসহ তার দুই সন্তান মারা গেছে। এখন তারা মরদেহের জন্য অপেক্ষা করছেন।

এদিকে মধ্যরাত থেকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগের সামনে স্বজনহারাদের ভিড়। তাদের কান্নায় ভারী হয়ে উঠেছে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বাতাস।

বৃহস্পতিবার রাত পৌনে ১০টার দিকে ভবনটিতে আগুন লাগে। আগুন নেভানোর পর হতাহত ব্যক্তিদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এবং শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে নেওয়া হয়।

রাত দুইটার দিকে স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন সাংবাদিকদের বলেন, এ ঘটনায় ৪৩ জন নিহত হয়েছেন। তাঁদের মরদেহ এই দুই হাসপাতালে আছে। এর বাইরে আরও মৃত ব্যক্তি থাকতে পারে।

এ ঘটনায় গুরুতর আহত ৮ জন বার্ন ইনস্টিটিউটে এবং ১৪ জন ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন বলে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান। তিনি বলেন, তাঁদের সবার অবস্থাও আশঙ্কাজনক।

Link copied!