• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন, ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

রাগ নিয়ন্ত্রণ করবে যে খাবার


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: নভেম্বর ২৯, ২০২১, ০৩:৩৪ পিএম
রাগ নিয়ন্ত্রণ করবে যে খাবার

মানুষের ষড় রিপুর মধ্যে ক্রোধ বা রাগ অন্যতম। অনেকেই এই রাগকে নিজের নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারেন আবার অনেকে রেগে গেলে দিগ্বিদিক জ্ঞানশূন্য হয়ে পড়েন। নিজের রাগকে বশে আনতে পারেন না কিছুতেই। এই পরিস্থিতিতে শুধু সেই ব্যক্তিই নয়, বিড়ম্বনায় পড়েন আশপাশের মানুষেও।

গবেষকরা বলছেন, রাগ নিয়ন্ত্রণ করতে সকালে উঠে ধ্যান করা অতি জরুরি। তবে কয়েকটি খাবার রয়েছে, যে খাবারগুলো প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় রাখলে রাগ নিয়ন্ত্রণে থাকে সহজেই।

চলুন জেনে নেয়া যাক মেজাজ বা রাগ নিয়ন্ত্রণে উপকারী কিছু খাবার সম্পর্কে-

আলু

কার্বোহাইড্রেট ও ভিটামিন বি সমৃদ্ধ আলু রক্তচাপ ও মানসিক স্ট্রেস কমাতে সাহায্য করে। তবে এক্ষেত্রে আলুর তরকারির পরিবর্তে আলু সিদ্ধ করে খেলে কাজ দেয় বেশি।

গ্রিন টি

সকালে কাজে বসার আগে নানান জটিলতায় মেজাজ চড়া হয়ে থাকতেই পারে। এই পরিস্থিতিতে এক কাপ গ্রিন টি মেজাজকে ঠান্ডা রাখতে সাহায্য করবে।

পিনাট বাটার ও আপেল

আপেলে আছে প্রচুর পরিমাণে কার্বোহাইড্রেট আর পিনাট বাটারে আছে ফ্যাট। পিনাট বাটারের সঙ্গে আপেল খেলে শরীরও সুস্থ থাকে। মেজাজও থাকে নিজের নিয়ন্ত্রণে।

অ্যাভাকাডো: অ্যাভাকাডোতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন বি আছে, যা মস্তিষ্কের কোষকে দক্ষতার সঙ্গে পরিচালনা করে থাকে। এতে বিটা ক্যারাটিন, লুটিন, ভিটামিন ই, এবং গ্লুটাথায়ন আছে। যা নার্ভকে শান্ত রাখতে সাহায্য করে।

ডিম

ডিম মুডকে প্রভাবিত করে থাকে। এতে প্রোটিন, ভিটামিন বি, ডি আছে যা রাগ নিয়ন্ত্রণ করে থাকে। প্রতিদিনকার খাদ্যতালিকায় ১টি বা ২টি ডিম রাখার চেষ্টা করুন।

কলা

ভিটামিন বি ও পটাশিয়াম সমৃদ্ধ কলা স্নায়ুকে শান্ত রাখতে সাহায্য করে। তাই যাঁরা খুব তাড়াতাড়ি রেগে যান, তাঁদের জন্য প্রতিদিন একটি করে কলা খুব উপকারী।

আইসক্রিম 

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, থ্রমবোটনিন হরমোন ক্ষরণ করতে সাহায্য করে আইসক্রিম। এটি হলো সেই হরমোন, যার ক্ষরণে খুশি থাকে আমাদের মন। যে কারণে আইসক্রিম খেলে মেজাজ থাকে ফুরফুরে। 

চকলেট

চকলেট খুব দ্রুত রাগ নিয়ন্ত্রণ করতে সাহায্য করে। রেগে গেলে একটুকরো চকোলেট মুখে নিতে পারেন। ম্যাজিকের মতো কাজ করবে এই চকলেট। তাই আজ থেকেই ব্যাগে রাখুন চকলেট।

সূত্র: আনন্দবাজার

Link copied!