• ঢাকা
  • রবিবার, ১৪ এপ্রিল, ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১, ৪ শাওয়াল ১৪৪৫

তিন মহাদেশ আর ছয় দেশে হবে ২০৩০ বিশ্বকাপ


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: অক্টোবর ৫, ২০২৩, ১০:২৩ এএম
তিন মহাদেশ আর ছয় দেশে হবে ২০৩০ বিশ্বকাপ
ছবি: সংগৃহীত

পুরো বিশ্ব এখন ভাসছে ক্রিকেট বিশ্বকাপের জোয়ারে। ওয়ানডে বিশ্বকাপ ২০২৩ এর পর্দা উঠছে বৃহস্পতিবার (৫ অক্টোবর) ইংল্যান্ড বনাম নিউজিল্যান্ড ম্যাচ দিয়ে। ক্রিকেটের এই দামাডোলের মাঝে ফিফা নতুন চমক নিয়ে হাজির হয়েছে। বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা জানিয়েছে, ২০৩০ বিশ্বকাপের আয়োজক দেশের নাম। ২০৩০ বিশ্বকাপে ৩ মহাদেশের ৬ দেশ আয়োজক হিসেবে থাকবে।  

২০৩০ সালের ফিফা বিশ্বকাপ যে ৬ দেশে হবে স্পেন, পর্তুগালের সঙ্গে আছে আফ্রিকার দেশ মরক্কো। আর টুর্নামেন্টের প্রথম তিন ম্যাচ হবে উরুগুয়ে, আর্জেন্টিনা এবং প্যারাগুয়েতে।  

এত দেশ নিয়ে বিশ্বকাপ আয়োজনের কারণও রয়েছে। ফিফার কাছে ২০৩০ সালের বিশ্বকাপ আয়োজনের প্রস্তাব দেয় মরক্কো। এর আগে ৫ বার এই আবেদন করেছিল তারা। প্রতিবারেই নাকচ হয়েছে তাদের আবেদন। এবার তাদের সঙ্গে যুক্ত হয়েছে পর্তুগাল এবং স্পেন। বিশ্বকাপ আয়োজনে তারা ছিল বড় দাবিদার। দুই মহাদেশ হলেও এতে সাড়া দিয়েছে ফিফা।

তবে অপর দিকে দক্ষিণ আমেরিকায় বিশ্বকাপ নেওয়ার যুক্তিও ছিল জোরালো। ২০৩০ সালে এই বৈশ্বিক এই আয়োজনের ১০০ বছর পূর্ণ হবে। এমন ঐতিহাসিক আয়োজনে অংশ হতে চেয়েছে উরুগুয়ে, আর্জেন্টিনা এবং প্যারাগুয়ে। ইতিহাসের প্রথম বিশ্বকাপের আয়োজক ছিল উরুগুয়ে। চ্যাম্পিয়নও ছিল তারাই। রানারআপ ছিল আর্জেন্টিনা। তাই বিশ্বকাপ আয়োজনের বড় দাবিদার ছিল তারাও। আর প্যারাগুয়ে দক্ষিণ আমেরিকার ফুটবল সংস্থা কনমেবল এর ঘরবাড়ি হিসেবে পরিচিত।

শেষ পর্যন্ত কাউকে হতাশ করেনি ফিফা। ৬ দেশকেই খুশি করে দেওয়া হয়েছে আয়োজনের দায়িত্ব। প্রথম তিন ম্যাচ হবে দক্ষিণ আমেরিকায়। এরপর টুর্নামেন্ট চলে যাবে ইউরোপ এবং আফ্রিকায়। ৬ দেশের প্রত্যেকেই আয়োজক হিসেবে সরাসরি বিশ্বকাপে অংশ নেওয়ার সুযোগ পাবে।  

বিষয়টি নিশ্চিত করে ফিফা প্রেসিডেন্ট জিয়ান্নি ইনফান্তিনো জানান, “বিভক্ত এক বিশ্বে ফুটবল সবাইকে এক করবে।”

Link copied!