• ঢাকা
  • রবিবার, ২৩ জুন, ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১, ১৬ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

থাইরয়েড কী, লক্ষণ ও করণীয়


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: মে ২৬, ২০২৪, ০৫:০৫ পিএম
থাইরয়েড কী, লক্ষণ ও করণীয়
নারীদের সন্তান নেওয়ার আগে ও গর্ভাবস্থায় উপসর্গ না থাকলেও থাইরয়েড পরীক্ষা করা নিরাপদ। প্রতিকী ছবিঃ সংগৃহীত

থায়রয়েড গ্রন্থি একটি অতি প্রয়োজনীয় অন্ত:ক্ষরা (এন্ডোক্রাইন/Endocrine) গ্লান্ড (Gland), যা গলার সামনের অংশে অবস্থিত। এটি মানবশরীরের প্রধান বিপাকীয় হরমোন তৈরিকারী গ্ল্যান্ড। থাইরয়েড হরমোনের অন্যতম কাজ শরীরে বিপাকীয় হার বা বেসাল মেটাবলিক রেট বাড়ানো। আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ কাজ স্নায়ুর পরিপক্বতা। 
শরীরে এই থাইরয়েড হরমোনের একটা নির্দিষ্ট মাত্রা আছে। নির্দিষ্ট মাত্রার চাইতে কম বা বেশি হরমোন উৎপাদিত হলেই শরীরে এর বিরূপ প্রভাব পড়তে পারে।
শরীরে থাইরয়েড হরমোন কম উৎপন্ন হলে বলা হয় হাইপোথাইরয়েডিজম এবং বেশি উৎপন্ন হলে বলা হয় হাইপারথাইরয়েডিজম।

থাইরয়েড সমস্যার কারণ

নানা কারণে থাইরয়েড সমস্যা হতে পারে।
যেমন –

  • আয়োডিনের অভাব
  • শরীরে অন্যান্য গ্রন্থির ঠিক করে কাজ না করা
  • থাইরয়েড গ্রন্থির জন্মগত ত্রুটি

থাইরয়েড সমস্যার লক্ষণ

থাইরয়েড সমস্যা হলে শরীরে কিছু পরিবর্তন লক্ষ করা যায়। 

  • ক্লান্তি ক্লান্তি ভাব
  • প্রচণ্ড গরম লাগা, হাত–পা ঘামা বা অল্পতেই শীত শীত লাগা
  • পরিপাকতন্ত্রের সমস্যা, খাওয়ার রুচি স্বাভাবিক থাকার পরও ওজন হ্রাস বা বৃদ্ধি পাওয়া
  •  ঘন ঘন পায়খানা বা কোষ্ঠকাঠিন্য
  • ত্বক শুষ্ক হয়ে যাওয়া
  • নারীদের ক্ষেত্রে মিন্সট্রুয়াল সাইকেল পরিবর্তন হয়ে যাওয়া
  • বুক ধড়ফড়, হৃৎস্পন্দন বৃদ্ধি, বুকে ব্যথা।
  • স্নায়ু ও মাংসপেশির সমস্যা
  • পেশীর দুর্বলতা ও পেশীতে ব্যথা

রোগ নির্ণয়
এই রোগ নির্ণয়ে সাধারণত চিকিৎসকেরা রক্তে ফ্রি থাইরক্সিন এবং টিএসএইচ (থাইরয়েড-স্টিমুলেটিং হরমোন) পরীক্ষা করতে দিতে পারেন। তবে যদি বাড়াবাড়ি অবস্থা হয় সেক্ষেত্রে থাইরয়েডের নানা অ্যান্টিবডি, গলার আলট্রাসনোগ্রাফি, রেডিও-আয়োডিন আপটেক পরীক্ষাও করতে হতে পারে। ক্যান্সার সন্দেহ হলে গলা থেকে টিস্যু নিয়ে বায়োপ্সি করতে বলা হয়ে থাকে।  

চিকিৎসা
থাইরয়েড রোগের চিকিৎসার প্রধান বিষয় হলো চিকিৎসা, অস্ত্রোপচার, হরমোন ও বিকিরণ। যদি থাইরয়েড রোগে কেউ আক্রান্ত হয় তাহলে তাকে সারাজীবন ওষুধ খেতে হয়। তবে থাইরয়েডের চিকিৎসার জন্য নির্ধারিত ওষধগুলোর মূল্য খুবই কম। নারীদের সন্তান নেওয়ার আগে ও গর্ভাবস্থায় উপসর্গ না থাকলেও থাইরয়েড পরীক্ষা করা নিরাপদ। থাইরয়েডের লক্ষণ দেখলে সঙ্গে সঙ্গে ভালো কোনো চিকিৎসকের পরামর্শ গ্রহণ করুন, তার নির্দেশতো পরীক্ষা করুন এবং নির্দেশনা অনুযায়ী জীবনযাপন করুন। 

Link copied!