• ঢাকা
  • রবিবার, ১৬ জুন, ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১, ৯ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

আখরোট খেলে বাড়বে আয়ু


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: আগস্ট ২৫, ২০২১, ০২:০৪ পিএম
আখরোট খেলে বাড়বে আয়ু

আখরোট বাদাম জাতীয় ফল। যা অত্যন্ত পুষ্টিকর। এতে রয়েছে প্রচুর আমিষ এবং ফ্যাটি আসিড আছে। গোলাকার এই ফলটির ভেতরে একটি বীজ থাকে। পাকা ফলের বাইরের খোসা ফেলে দিলেই ভেতরের শক্ত খোলসযুক্ত বীজটি পাওয়া যায়। এই খোলসের ভেতরে থাকে দুইভাগে বিভক্ত বাদাম। এটি বাদামি রঙের আবরণে থাকে। এটি এন্টি-অক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ ফল।

আখরোট শরীর সুস্থ রাখার জন্য একটি অতি গুরুত্বপূর্ণ খাদ্য। সম্প্রতি এক গবেষণায় উঠে এসেছে, সপ্তাহে অন্তত ৫ বার আখরোট খেলে মানুষের আয়ু বাড়ে। অকাল মৃত্যুর আশঙ্কা কমে যায়।

আমেরিকার হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি সমীক্ষায় উঠে আসে এই তথ্য। এ সংক্রান্ত এক গবেষণাপত্র প্রকাশ করেছেন হার্ভার্ডের বিজ্ঞানীরা। ‘নিউট্রিয়েন্টস’ পত্রিকায় প্রকাশিত হয় এই গবেষণাপত্র।

১৯৯৮ থেকে ২০১৮ পর্যন্ত চালানো হয় এই সমীক্ষা। ২০ বছরে ৬৭ হাজার ১৪ জন নারী এবং ২৬ হাজার ৩২৬ জন পুরুষের স্বাস্থ্য সম্পর্কে নানা তথ্য বিশ্লেষণ করেন গবেষকরা। প্রতি ৪ বছরে তাদের খাওয়াদাওয়ার অভ্যাসে কী পরিবর্তন এসেছে, সেই তথ্য নেন  গবেষকরা। কে সপ্তাহে কতো বার আখরোট খেয়েছেন, কতো ঘণ্টা ব্যায়াম করেছেন, সে দিকেও নজর রেখেছেন। যারা চিনা বাদাম বা কাঁঠবাদাম খেয়েছেন তাদের তথ্য আলাদা ভাবে রাখা হয়। আর যারা আখরোট খেয়েছেন তাদের তথ্য আলাদা রাখা হয়। সব তথ্য বিশ্লেষণের পর আখরোটের এই গুণ সম্পর্কে নির্দিষ্ট ধারণা দিয়েছেন গবেষকরা।

গবেষণাপত্রে জানানো হয়, প্রাপ্তবয়স্করা যারা নিয়ম মেনে পুষ্টিকর খাওয়া দাওয়া করেন না তাদের জন্য় আখরোট অত্যন্ত উপকারী খাবার। কাজের চাপে নিয়মিত পুষ্টিগুণ যাচাই করে খাবার খাওয়া করা সম্ভব হয় না। নিয়মিত আখরোট খেলে তাদের পুষ্টির ঘাটতি অনেকটাই মিটবে। 

গবেষণায় বিজ্ঞানীরা পরামর্শ দেন, সপ্তাহে ৫ দিন আখরোট খাওয়া গেলে হার্টের অসুখে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু আশঙ্কা প্রায় ২৫ শতাংশই কমে। সাধারণ মানুষ বছরখানেক বেশি বাঁচতে পারে। নিয়মিত যারা আখরোট খাবেন, তারা শারীরিক ভাবে অনেক সচল থাকবেন।

 

সূত্র: হেলথ বেনিফিট টাইমস

Link copied!