• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০, ১৩ শা’বান ১৪৪৫

ব্রিটিশ কৃষ্ণাঙ্গ নারী স্প্রিন্টার বিয়াঙ্কার অলিম্পিক-স্বপ্ন হুমকির মুখে


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: ডিসেম্বর ৫, ২০২৩, ০১:১৫ পিএম
ব্রিটিশ কৃষ্ণাঙ্গ নারী স্প্রিন্টার বিয়াঙ্কার অলিম্পিক-স্বপ্ন হুমকির মুখে
বিয়াঙ্কা উইলিয়ামস

ব্রিটিশ স্প্রিন্টার বিয়াঙ্কা উইলিয়ামসকে ছয় মাসের জন্য গাড়ি চালানো থেকে নিষিদ্ধ করেছেন আদালত। এপ্রিল থেকে জুন পর্যন্ত পুলিশের তিনটি চিঠির জবাব দিতে ব্যর্থ হওয়ায় তার ওপর এই নিষেধাজ্ঞা এলো। আর এ কারণে তার ২০২৪ সালের অলিম্পিকে যাওয়ার সম্ভাবনা হুমকির মুখে পড়ল। 

২৯ বছর বয়সী বিয়াঙ্কার অপরাধ, তিনি একটি টেসলা মডেল-৩ গাড়ি চালানোর সময় সেখানে সংঘটিত এক অপরাধ সম্পর্কে পুলিশকে ধারণা দিতে ব্যর্থ হয়েছিলেন।

বিয়াঙ্কা দাবি করেন, এই নিষেধাজ্ঞা তার প্রশিক্ষণে যাওয়া কঠিন করে তুলবে। কিন্তু ল্যাভেন্ডার হিলের ম্যাজিস্ট্রেটরা তার দাবি প্রত্যাখ্যান করে বলেছেন, সে ছয় মাস পাবলিক ট্রান্সপোর্ট ব্যবহার করতে এবং নিজেও গাড়ি চালাতে পারবেন না। 

২০২০ সালে বিয়াঙ্কা ও তার পর্তুগিজ স্বামী স্প্রিন্টার রিকার্ডো ডস সান্টোস (২৮) যে গাড়িতে যাচ্ছিলেন, তা থামাতে ব্যর্থ হওয়ায় গেল অক্টোবরে দুই পুলিশ কর্মকর্তাকেও বরখাস্ত করা হয়েছে। পশ্চিম লন্ডনে বসবাসকারী বিয়াঙ্কা ও তার স্বামী সান্টোস দুজনেই কৃষ্ণাঙ্গ। তাদের দাবি কৃষ্ণাঙ্গ বলেই তারা বর্ণবাদের শিকার হয়েছেন।  

বিয়াঙ্কা আদালতকে এটাও বলেন যে তার একটি তিন বছরের বাচ্চা রয়েছে। সকালে অনুশীলনে যাওয়ার সময় তিনি বাচ্চাকে একটি নার্সারিতে রেখে যান। গাড়ি চালাতে না পারলে কিংবা পাবলিক গাড়ি ব্যবহারের অনুমতি না পেলে তার আগামী বছরের অলিম্পিক স্বপ্ন ফিকে হয়ে যাবে। তিনি সন্ধ্যায় একটি টেনিস কোচিংয়ে প্রশিক্ষকের দায়িত্ব পালনও করেন। কোচিং করাতে না পারলে তার আয়ের পথও বন্ধ হয়ে যাবে। কিন্তু এতেও আদালত তার প্রতি সহানুভূতি দেখায়নি। 

ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে একটি কমনওয়েলথ গেমসে দুটি স্বর্ণপদক ও বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে ব্রোঞ্জপদক জেতা বিয়াঙ্কার স্বপ্ন ছিল প্যারিসে অনুষ্ঠিতব্য ২০২৪ সালের অলিম্পিকে দেশের জন্য সাফল্য বয়ে আনা। কিন্তু তার সে স্বপ্ন হয়তো বাস্তবায়িত হবে না।

 

Link copied!