• ঢাকা
  • বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ৮ ফাল্গুন ১৪৩০, ১১ শা’বান ১৪৪৫

ওয়াশিং মেশিনে জুতা ধোয়ার নিয়ম


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: আগস্ট ২০, ২০২৩, ০১:১৮ পিএম
ওয়াশিং মেশিনে জুতা ধোয়ার নিয়ম

ওয়াশিং মেশিন সাধারণত জামাকাপড় ধোয়ার জন্য ব্যবহৃত হয়। কিন্তু জামাকাপড়ের বাইরেও কিছু জিনিস চাইলে ধোয়া যায়। যেমন জুতা পরিষ্কার করাটা একট ঝামেলার কাজ। তাই জুতো কাচার জন্য ওয়াশিং মেশিনকে কাজে লাগানোই যায়। তবে তার জন্য মাথায় রাখতে হবে কয়েকটি বিষয়। চলুন জেনে নিই-

জুতার ধরণ
চামড়ার জুতা নোংরা হলে তাতে পানি লাগানো যায় না। তাই কী ধরনের জুতো ওয়াশিং মেশিনে দেওয়া যায় তা জেনে নেওয়া জরুরি। অনেকেই কাপড় বা ক্যানভাসের তৈরি জুতা মেশিনে ধুয়ে নেন। এছাড়াও প্লাস্টিক বা নাইলনের জুতোও ধোয়া যায়।

বেশি দাগযুক্ত জুতা
কাদামাখা জুতা সরাসরি মেশিনে না দিয়ে আগে ধুয়ে নিন। তারপরে মেশিনে দিন। খেয়াল রাখবেন জুতায় কোনোভাবে তেল, কালি, রক্ত বা খাবারের হলুদ দাগ লেগে থাকলে, সেই নির্দিষ্ট জায়গাটি টুথব্রাশ এবং তরল সাবান দিয়ে আগে পরিষ্কার করে নিতে হবে।

বালিশের কভার
ওয়াশিং মেশিনে ছোট ছোট জিনিস কাচতে দেওয়ার সময় নেটের ব্যাগ ব্যবহার করুন। বিশেষ করে জুতা ধোয়ার সময় এই নেটের ব্যাগে ঢুকিয়ে, ব্যাগের মুখ বন্ধ করে তারপর মেশিনে দেওয়া ভালো। ব্যাগ না থাকলে বালিশের কভারও ব্যবহার করা যায়। শুধু খেয়াল রাখতে হবে ব্যাগের মুখ যেন বন্ধ থাকে। বাড়িতে যদি পুরনো, অব্যবহারযোগ্য তোয়ালে থাকে, সেগুলোও জুতোর সঙ্গে ঢুকিয়ে দিন। ছোট জিনিস হলেও এতে কাচার সময় ভারসাম্য বজায় থাকবে।

জুতার ফিতা
ওয়াশিং মেশিনে জুতা কাচতে দেওয়ার সময় ফিতা আলাদা করে নেওয়া ভালো। না হলে মেশিনের মধ্যে থাকা যন্ত্রাংশের মধ্যে ফিতা জড়িয়ে যেতে পারে। তাই ছোট একটি পাত্রে পানি এবং তরল সাবান দিয়ে সেগুলো ভিজিয়ে রাখুন।

খোলা হাওয়ায় শুকিয়ে নিন
ওয়াশিং মেশিনে কাচা পোশাক সাধারণত পাশে থাকা ড্রায়ারে দিয়ে অর্ধেক শুকিয়ে নেওয়া হয়। কিন্তু জুতার ক্ষেত্রে বিষয়টি একটু আলাদা। মেশিনের সঙ্গে থাকা ড্রয়ারের তাপমাত্রা জুতার জন্য উপযুক্ত নয়। কারণ, জুতার মধ্যে আঠা দিয়ে লাগানো জিনিসগুলো খুলে যেতে পারে।

Link copied!