• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই, ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১, ১০ মুহররম ১৪৪৫

শিল্পকলায় ‘স্বরকল্পন আবৃত্তিচক্র’-এর আবৃত্তিসন্ধ্যা


সংবাদ প্রকাশ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: মার্চ ৩১, ২০২২, ১১:৫৫ এএম
শিল্পকলায় ‘স্বরকল্পন আবৃত্তিচক্র’-এর আবৃত্তিসন্ধ্যা

আবহমান বাংলা ও বাঙালির অন্যতম সেরা ভাষাশিল্পী, সব্যসাচী লেখক সৈয়দ শামসুল হক রচিত ‘পরানের গহীন ভিতর’ শীর্ষক আবৃত্তিসন্ধ্যার আয়োজন করেছে ‘স্বরকল্পন আবৃত্তিচক্র’।

শুক্রবার (১ এপ্রিল) বিকেল ৫টা ও সন্ধ্যা ৭টায় বাংলাদেশ শিল্পকলা একডেমির জাতীয় সংগীত, নৃত্যকলা ও আবৃত্তি মিলনায়তনে এই প্রযোজনা পরিবেশিত হবে।প্রযোজনাটির নির্দেশনায় আছেন মোস্তাফিজ রিপন।

অনুষ্ঠান প্রসঙ্গে মোস্তাফিজ রিপন বলেন, “সৈয়দ শামসুল হকের ‘পরানের গহীন ভিতর’ কাব্যগ্রন্থটি বাংলা সাহিত্যের এক অনন্য সম্পদ। লোকজ শব্দ আর হৃদয়ে কান পেতে তুলে আনা স্বগতঃবিলাপে কী অবলীলায় তিনি বলে গেলেন, ‘মানুষ কী জানে ক্যান মোচড়ায় মানুষের মন’—এমন জীবন্ত অনুভূতির পূর্ণ প্রকাশে মানুষের পরানের গহীনে মোচড় দেয়। এমনই জীবন কথনে সাজানো ‘পরানের গহীন ভিতর’ নিয়ে আবৃত্তি প্রযোজনা মানুষের অনুভূতিকে আলোড়িত করবে।”

স্বরকল্পন আবৃত্তিচক্রের আহ্বায়ক কমিটির প্রধান শাহীদুল হক মিল্কী প্রযোজনাটি সম্পর্কে বলেছেন, “সব্যসাচী লেখক সৈয়দ শামসুল হকের এক অনন্যসাধারণ সৃষ্টি ‘পরানের গহীন ভিতর’ কাব্যগ্রন্থ। এর প্রতিটি কবিতা প্রাণের গভীরতর অনুভূতিগুলোর সাবলীল আর নান্দনিক উপস্থাপনায় সমৃদ্ধ। দীর্ঘ সময় অনুশীলন শেষে স্বরকল্পনের আবৃত্তিশিল্পীরা এই প্রযোজনাটির দ্বিতীয় ও তৃতীয় মঞ্চায়ন করছে। আশা করি কবিতা ও আবৃত্তি, সকলের ভালো লাগবে।”

স্বরকল্পন আবৃত্তিচক্রের সদস্য এবং প্রযোজনাটির সমন্বয়ক সোহেল আহমেদ বলেন, “আমরা একঝাঁক তরুণ হৃদয় শুক্রবার সন্ধ্যায় মিলিত হবো প্রাণের উচ্ছ্বাসে। ‘পরাণের গহীন ভিতর’ সৈয়দ শামসুল হকের এমন এক অনবদ্য সৃষ্টি, যেখানে প্রতিটি বাঙালির হৃদয়বৃত্তির বহিঃপ্রকাশ তুলে ধরেছেন অত্যন্ত সুদক্ষতার সঙ্গে। আমরা বিশ্বাস করি আমাদের দীর্ঘ পাঁচ মাসের পরিশ্রম শুক্রবার সন্ধ্যায় আপনাদের আনন্দের রসদ জোগাবে।” 

স্বরকল্পন আবৃত্তিচক্রের প্রাক্তন নির্বাহী সদস্য মো. রাশেদুর রহমান বলেন, “অতিমারির ভয়াল আগ্রাসনের চলমান পরিস্থিতির মধ্যে অনেক প্রতিকূলতা অতিক্রম করে আশা করি এই অনুষ্ঠানটি আমাদের সমৃদ্ধ প্রযোজনা হিসেবে পরিচিতি পাবে।”

আবৃত্তিচক্রের এ প্রযোজনায় অংশ নিবেন জ্যেষ্ঠ ও তরুণ আবৃত্তিশিল্পী।  প্রযোজনায় অংশগ্রহণ করবেন জনি মুহাম্মদ নুর উদ্দিন, আশরাফি জাহান মিতু, আনতারা রহমান প্রীতি, মনোয়ার হোসেন, বর্ণালী সরকার, তৃষা খন্দকার, শহীদুল হক মিল্কী, মুনতাহাব মুনিয়া, সোহেল আহমেদ, রিফাত আরা ইসলাম, খুরশিদা ইয়াসমিন, মাজেদা পারভীন বকুল, হাবিবুল্লাহ জোয়াদ্দার, আরিফ আনোয়ার ও দেওয়ান সুমাইয়া সুলতানা আশা।

মঞ্চ পরিকল্পনায় আছেন জাহিদুর রহমান। আবহ সংগীতে মাহফুজ হৃদয়, মোবারক হোসাইন ও সজীব বাউল। এছাড়াও আলোক প্রক্ষেপণে রয়েছেন কমল কান্তি সরকার, আরিফ আনোয়ার ও কাজী সিনহা এবং শব্দ নিয়ন্ত্রণে তৌয়ব উল্লাহ।

Link copied!