• ঢাকা
  • শনিবার, ১৩ জুলাই, ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১, ৬ মুহররম ১৪৪৫

গরমে পা ফাটা সমস্যা দূর করবেন যেভাবে


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: জুন ২৪, ২০২৪, ০৮:০৪ পিএম
গরমে পা ফাটা সমস্যা দূর করবেন যেভাবে
প্রতিদিন গোসলের সময়ে গোড়ালি ঘষে পরিষ্কার করুন। ছবি: সংগৃহীত

পায়ের গোড়ালি ফেটে যাওয়া একটি বিব্রতকর সমস্যা। আজকাল শুধু আর শীতকালে নয়, সারা বছরই পা ফাটছে। এর জন্য আবহাওয়ার পরিবর্তন, দূষণসহ আরও নানা কারণ দায়ী। আবার অনেক বেশি হাঁটাচলা, দিনের দীর্ঘসময় দাঁড়িয়ে কাজ করা, ডিহাইড্রেশন ইত্যাদির কারণেও সারাবছর পা ফাটতে পারে। একটু যত্ন নিলেই পা থাকবে কোমল আর গোড়ালি ফাটার সমস্যাও কমে যাবে। জেনে নিন, কী ভাবে যত্ন নিলে খুব তাড়াতাড়ি উপকার পাবেন।

নির্দিষ্ট সময় পর পর পেডিকিওর করুন
যদি খোলা স্যান্ডেল বা জুতো পরার অভ্যাস থাকে, তাহলে ১০ দিনে অন্তত একবার পেডিকিওর করা উচিত। এতে পায়ের ময়লা পরিষ্কার হবে পা ফাটা দূর হবে।

নিয়মিত স্ক্রাব করুন
গোড়ালি থেকে ময়লা পরিষ্কার করা খুব জরুরি। এর জন্য প্রায় প্রতিদিন গোসলের সময়ে ‘স্ক্রাবার’ দিয়ে গোড়ালি ঘষে পরিষ্কার করুন। তারপর পায়ে ও গোড়ালিতে লোশন লাগাতে হবে। এতে গোড়ালি ফাটার সমস্যা কমবে।

মাউথওয়াশ
গরমে পায়ের পাতা ফাটা বা গোড়ালি ফাটার সমাধান করতে পারে মাউথওয়াশ। ১ ভাগ মাউথওয়াশের সঙ্গে ২ ভাগ পানি মিশিয়ে তাতে ফাটা জায়গা ডুবিয়ে রাখুন। জীবাণু মরবে, আর পায়ের আর্দ্রতাও থাকবে।

জেল প্যাড ব্যবহার করতে পারেন
জুতা-স্যান্ডেলে ব্যবহার করার জন্য বাজারে জেল প্যাড কিনতে পাওয়া যায়। চাইলে এগুলোও ব্যবহার করতে পারেন। একটি জেল প্যাড পায়ের পাতায় এবং আরেকটি পায়ের গোড়ালিতে ব্যবহার করতে পারেন।

পেট্রোলিয়াম জেলি খুব কার্যকরী
প্রতিদিন রাতে ঘুমানোর সময় পায়ে পেট্রোলিয়াম জেলি লাগাতে হবে, এতে পা কোমল থাকবে। তাছাড়া উষ্ণ গরম পানিতে পায়ের পাতা ভিজিয়ে রাখুন ২০ মিনিট। তারপরে পা শুকনো করে মুছে ভাল করে পেট্রোলিয়াম জেলি লাগিয়ে নিন।

মধু
গ্রীষ্মে পা ফাটার আর এক সমাধান মধু। ফাটা জায়গায় মধু লাগিয়ে রেখে দিন আধ ঘণ্টা। তার পরে ধুয়ে ফেলুন। এতে ফাটা জায়গায় জীবাণুর সংক্রমণ কমবে। ফাটাও কমবে।

অ্যালোভেরা জেল
অ্যালো ভেরা জেল ত্বকের জন্য খুবই উপকারী। ফাটা গোড়ালিতে নিয়ম করে অ্যালো ভেরা জেল লাগালে খুব দ্রুত পা ফাটার সমস্যা থেকে রেহাই পাবেন। অ্যালো ভেরা জেল ফ্রিজে রেখে ঠান্ডা করে এর সঙ্গে মধু মিশিয়েও লাগাতে পারেন। তবে তার আগে পা উষ্ণ গরম পানিতে ধুয়ে, শুকনো করে মুছে নেবেন।

পর্যাপ্ত পানি পান করুন
গরমে পা ফাটার আরও একটি কারণ হল শরীরে পানির ঘাটতি। পরিবেশের আর্দ্রতা কম থাকা, কম পানি পান করা কিংবা দীর্ঘক্ষণ হাঁটাহাঁটি করার ফলে পায়ের ত্বকের আর্দ্রতা কমে যেতে পারে। ফলে চামড়া শুকিয়ে ও ফেটে যেতে পারে।

কলা
পাকা কলা, মধু আর এক চামচ ওট্‌স মিশিয়ে মাস্ক বানিয়েও লাগাতে পারেন। এতে যেমন গোড়ালি কোমল হবে, তেমনই পায়ের ব্যথাও দূর হয়ে যাবে। এই মাস্ক লাগিয়ে ১০ মিনিট ম্যাসাজ করুন। এতে পায়ে রক্ত সঞ্চালন ভাল হবে। তবে এই মাস্ক কিন্তু ১৫ মিনিট রাখার পর ধুয়ে ফেলতে ভুলবেন না।

নারকেল তেল
ঘুমোতে যাওয়ার আগে ভাল করে পায়ের পাতায়, গোড়ালিতে নারকেল তেল ম্যাসাজ করলে পা অনেক নরম হবে।

লবণ ও শ্যাম্পুর প্যাক
যাদের গোড়ালি ফাটার সমস্যা আছে, তারা সপ্তাহে অন্তত একবার পানিতে একটু লবণ ও কিছুটা শ্যাম্পু মিশিয়ে নিয়ে সেই পানিতে পা ভিজিয়ে রাখুন ২০ মিনিটের জন্য। তারপর পা ভালোভাবে ধুয়ে নিয়ে মুছে ফেলুন। পা শুকানোর পর পেট্রোলিয়াম জেলি ও গ্লিসারিন একসঙ্গে মিশিয়ে পায়ে লাগিয়ে রাখুন।

Link copied!