• ঢাকা
  • রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০, ১৪ শা’বান ১৪৪৫

ঢাকার বাজারে হঠাৎ বেড়েছে ডিমের দাম


বিজন কুমার
প্রকাশিত: আগস্ট ৯, ২০২৩, ০৯:০৪ পিএম
ঢাকার বাজারে হঠাৎ বেড়েছে ডিমের দাম
কারওয়ান বাজারের ডিম বিক্রেতা। ছবি-সংবাদ প্রকাশ

ঢাকার বাজারে হঠাৎ বেড়েছে ডিমের দাম। ডিম সবার কাছে অনেকটা প্রিয় খাবার। এ কারণে বেশি বিপাকে পড়েছেন বাড়ির কর্তারা।

অন্যদিকে নিত্যপণ্যের এই চড়া বাজারে নাভিশ্বাস উঠেছে খেটে খাওয়া মানুষদেরও।

বুধবার (৯ আগস্ট) রাজধানীর কারওয়ান বাজার ঘুরে দেখা যায়, দুই-তিন দিনের ব্যবধানে হালিতে ডিমের দাম বেড়েছে ২ থেকে ৪ টাকা। ডজনে ৫ থেকে ১০, আর হাজারে বেড়েছে ৬৫ থেকে ৭০ টাকা। হঠাৎ ডিমের এমন মূল্য বৃদ্ধির কারণ সবার অজানা। সবাই চায় ডিমের বাজার ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে থাকুক।

কারওয়ান বাজারে মুরগির ডিম প্রতি হালি বিক্রি হচ্ছে ৫২ থেকে ৫৫ টাকা দরে। তিন দিন আগে এই বাজারেই ডিমের হালি ছিল ৪৮ থেকে ৫০ টাকা। ডজনের দাম ছিল ১৪০ টাকা। বর্তমানে সেই ডিমের ডজন ১৪৫ থেকে ১৫০ টাকা।

অপরদিকে, প্রতি এক হাজার ডিমের বর্তমান মূল্য ১২৫০ থেকে ১২৫৫ টাকা, যা আগে বিক্রি হয়েছে ১১৭০ থেকে ১১৮০ টাকায়।

ফার্মগেট থেকে কারওয়ান বাজারে ফ্রান্সিস নামের এক ছাত্র এসেছেন ডিম কিনতে। দাম বৃদ্ধিতে বিপাকে পড়েছেন তালিকা ধরে বাজার করতে আসা এই শিক্ষার্থী। কথা হলে তিনি বলেন, “আমরা ঢাকায় তো পড়ালেখার সুবাদে থাকি। ডিমটাই সচরাচর বেশি খাওয়া হয়। কিন্তু এমন মূল্যবৃদ্ধিতে একটু বিপাকেই পড়তে হয়েছে। কেন এই ডিমের দাম বাড়ল আমি জানি না। যে টাকা নিয়ে বাজারে আসছি ওই টাকায় বাজার হবে না। কারওয়ান বাজার আগের থেকে একটু খারাপ মনে হয়। বাজারটা যাতে নিয়ন্ত্রণে থাকে এটাই প্রত্যাশা।”

আরেক ক্রেতা মোসাদ্দেক সফি বলেন, “ডিম মোটামুটি সবাই খায়। সবার কাছে এটি প্রিয় খাবার। তিন দিনের মধ্যে ডিমের দামটা বেড়ে গেল। কীভাবে মেনে নিই বলেন তো? কয়েক দিন আগে এই ডিম কিনছি ৫০ টাকা হালি। আর আজকে কিনতে হচ্ছে ৫৫ টাকায়। আমাদের সমস্যা বলে বোঝানো যাবে না। বাজারে সব জিনিসের দাম বেশি। ডিম খেয়ে থাকবেন? সেটাও হলো না।”

ডিমের মূল্যবৃদ্ধির কারণ সম্পর্কে জানতে চাওয়া হয় মঈউদ্দীন নামের এক বিক্রেতার কাছে। তিনি বলেন, “দাম কেন বেড়েছে, তা আমার জানা নেই। সরবরাহ কম থাকায় দাম বাড়ছে বলে অনেকের ধারণা। কবে ডিমের দাম কমবে, সেটিও আমার জানা নেই। সরবরাহ বাড়লে দাম কমবে, এটাই স্বাভাবিক। আর দাম বেড়ে যাওয়ায় বাজারে ক্রেতা কিছুটা কম, এটা সঠিক।”

মজিবর রহমান নামের অপরএক ডিম বিক্রেতা বলেন, “আমরা এক-দুই টাকা লাভের আশায় ডিম বিক্রি করি। আড়তে দাম বাড়লে আমাদের তো কম দামে বিক্রি করা সম্ভব নয়। দাম বেড়ে যাওয়ার কারণ আমি জানি না। ক্রেতারা মোটামুটি আসছে।”

জাতীয় বিভাগের আরো খবর

Link copied!