• ঢাকা
  • সোমবার, ২৪ জুন, ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১, ১৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের জন্য নীতিমালা বদল


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: জুলাই ১৫, ২০২১, ০৯:০০ পিএম
ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের জন্য নীতিমালা বদল

এবার ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের ঋণ দিতে নীতিমালা বদল করছে বাংলাদেশ ব্যাংক। রোববার (৪ জুলাই) বাংলাদেশ ব্যাংকের এসএমই অ্যান্ড স্পেশাল প্রোগ্রামস বিভাগ এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করে। আগে উদ্যোক্তারা শুধু চলতি মূলধন ঋণ নিতে পারতেন। এখন প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী কুটির, অতিক্ষুদ্র ও ক্ষুদ্র উদ্যোক্তারা মেয়াদি ঋণও নিতে পারবেন। আর এসব ঋণে সরকার এক বছর পর্যন্ত সুদ ভর্তুকি দেবে।  

কুটির, অতিক্ষুদ্র ও ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের কম সুদের ঋণ প্রণোদনার ঋণ পৌঁছাতে উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। ২০ হাজার কোটি টাকার তহবিল থেকে এই ঋণ দেওয়া হবে। গত অর্থবছরে এ তহবিলের আওতায় ঋণ পেয়েছেন ৯৪ হাজার ৯৬৯ জন গ্রাহক। যেখানে ঋণ বিতরণ করা হয় প্রায় ১৫ হাজার কোটি টাকা। এ ঋণে ৪ শতাংশ হারে গ্রাহকদের সুদ ‍দিতে হচ্ছে এবং বাকি ৫ শতাংশ ভর্তুকি দিচ্ছে সরকার। 

এদিকে চলতি অর্থবছরে ২০ হাজার কোটি টাকার ঋণ ছোট উদ্যোক্তাদের মাঝে দেওয়ার লক্ষ্য ঠিক করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এ জন্য ব্যাংকগুলোকে ঋণ দেওয়ার লক্ষ্য বেঁধে দেওয়ার পাশাপাশি ঋণে শর্ত শিথিলের সিদ্ধান্ত হয়েছে। 

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট একজন কর্মকর্তা বলেন, আগে চলতি মূলধন হিসেবে ঋণ দেওয়ার বিষয়টি উল্লেখ ছিল। কারণ কুটির, অতিক্ষুদ্র ও ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের জন্য চলতি মূলধন পাওয়া কঠিন। কিন্তু কাগজপত্রের জটিলতায় তাঁরা চলতি মূলধন হিসেবে ঋণ পাচ্ছিলেন না। তাই তাঁরা যাতে সহজে ঋণ নিতে পারেন, সে জন্য মেয়াদি ঋণ দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। এখন ছোট উদ্যোক্তাদের ঋণ পেতে খুব বেশি অসুবিধায় পড়তে হবে না।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, কুটির, অতিক্ষুদ্র ও ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের কাছে চলতি মূলধনের পরিবর্তে মেয়াদি ঋণ দেওয়া যাবে। তবে মাঝারি খাতের উদ্যোক্তারা আগের মতো চলতি মূলধন ঋণ পাবেন। এসব ঋণের প্রথম এক বছর সুদ ভর্তুকি পাবেন উদ্যোক্তারা।

জাতীয় বিভাগের আরো খবর

Link copied!