• ঢাকা
  • শনিবার, ১৫ জুন, ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১, ৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

ভালো অভ্যাস রপ্ত করুন


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: আগস্ট ২৪, ২০২১, ০১:৫৫ পিএম
ভালো অভ্যাস রপ্ত করুন

দৈনন্দিন জীবনে অভ্যাসের গতিতে মানুষ পরিচালিত হয়। ভালো অভ্যাস, বদভ্যাস মিলেই মানুষের জীবন। এর ওপর নির্ভর করে মানুষের দেহঘড়িও। চারপাশের পরিবেশের সঙ্গে খাপ খাওয়ানো, সামাজিকতায় অভ্যস্ত হওয়াও অভ্যাসের গণ্ডিতেই চলে। অনেকে আছেন কাজের মধ্যে থাকাই তাদের পছন্দ, আবার অনেকে অলস জীবন কাটাতেই পছন্দ করেন। একসময় এসবই অভ্যাসে পরিণত হয়। 

উন্মুক্ত ও স্বাস্থ্যকর জীবনযাত্রায় অভ্যাস মানুষের জীবনে ব্যাপক পরিবর্তন ঘটায়। বিশেষজ্ঞরা বলেন, কিছু ভালো অভ্যাস সুস্থ জীবনের চাবিকাঠি হতে পারে। স্বাস্থ্যকর খাবার এবং শরীরচর্চা দীর্ঘ সুন্দর জীবন দিতে পারে। আর বদ অভ্যাসের কারণে মানুষের শরীর যেমন ক্ষতিগ্রস্ত হয় তেমনি একপর্যায়ে গিয়ে মানসিক বিপর্যয়ও ঘটে। 

জীবনযাপনে সুপ্রভাব ফেলতে পারে এমন কিছু ভালো অভ্যাস রপ্ত করে নিতে পারেন। ভালো অভ্যাসগুলো নিয়ে জানাব এই আয়োজনে।

  • ভালো অভ্যাসের শুরুটা সকাল থেকেই হোক। দ্রুত ঘুম থেকে উঠুন। সকালে তাড়াতাড়ি বিছানা থেকে ওঠার অভ্যাস করুন। অন্তত সূর্য ওঠার এক ঘণ্টা আগে ওঠা উচিত। এতে শরীরে সতেজতা ফিরে আসে। 
  • প্রতিদিন দুই ফোঁটা তিলের তেল বা সরিষার তেল নাকে ব্যবহার করুন। এটি বেশ উপকারী। যাদের চুল অকালে ধূসর হয়ে যাচ্ছে বা চুল পড়ে টাক হয়ে যাচ্ছে তাদের জন্য় এটি দারুণ কার্যকর। এতে ভালো ঘুমও হয়। 
  • সকালে ঘুম থেকে উঠেই খালি পেটে পানি পান করুন। এটি শরীরের ভারসাম্য রক্ষা করে।
  • সকালে উঠে ঘরে কিংবা বাইরে যেখানেই সুযোগ পাবেন ব্যায়াম বা শরীরচর্চার অভ্যাস করুন। এতে শরীরের স্থবিরতা দূর হয়। শরীরকে কর্মক্ষম করে তোলে।
  • দাঁত ভালো রাখতেও যত্ন প্রয়োজন। নিম দাঁতন ব্যবহার করতে পারেন। এছাড়া প্রতিদিন ব্রাশ করে গরম পানিতে লবণ মিশিয়ে কুলিকুচি করুন। সকালে ও রাতে দুই বেলা করুন। এতে দাঁত শক্ত হয়, পরিষ্কার থাকে এবং দুর্গন্ধ দূর হয়। 
  • সকালে ব্যায়াম শেষ করেই গোসলে যাবেন না। অন্তত এক ঘণ্টা বিশ্রাম নিন। এরপর গোসল করুন। এতে শরীরের অতিরিক্ত প্রদাহ কমবে। শরীর সতেজ থাকবে। 
  • সকালে দুধ চা বা কফি খাচ্ছেন? সম্ভব হলে দুধ চায়ের পরিবর্তে মশলা চা পান করুন। এটি শরীরকে হাইড্রেটেড রাখে। ধনে, জিরা, আদা, হলুদ আর সঙ্গে লেবু, মধু দিয়ে চা বানিয়ে খান। উপকার পাবেন। হলুদ দুধও প্রতিদিন খাওয়ার অভ্যাস করুন।
  • রাতের খাবার রাত ৮টার মধ্যেই শেষ করুন। বিশেষজ্ঞরা বলেন, এতে খাবার হজমে এবং পাচনতন্ত্রের সহায়তা করে। তাই তাড়াতাড়ি খাওয়া অভ্যাস করুন। 
  • সকালে যেমন তাড়াতাড়ি ঘুম থেকে উঠছেন এর জন্য় রাতে তাড়াতাড়ি ঘুমিয়ে পড়াটাও জরুরি। কারণ প্রতিদিন কমপক্ষে ৮ ঘণ্টা ঘুম শরীরের জন্য় ভালো।
  • বাইরে গেলে সঙ্গে এক বোতল পানি, শুকনো খাবার রাখার চেষ্টা করুন। এতে বেশিক্ষণ পেট খালি থাকেন না। অ্যাসিডিটির সমস্যাও হয় না।
  • কারও সঙ্গে দেখা হলে কুশল বিনিময় করাও ভালো অভ্যাস। আত্মীয়স্বজনদের খোঁজ নিন। তাদের সঙ্গে সুসম্পর্ক রাখুন।
  • বই পড়ার অভ্যাস করুন। জ্ঞানের পরিধি বৃদ্ধি পাবে। যা জীবনে কাজে লাগিয়ে সামনে এগিয়ে যেতে সহায়তা করবে।
  • সত্য় কথা বলবেন। মিথ্যা কথার জেরে কোনো সম্পর্ক নষ্ট হয়ে যেতে পারে। আবার মিথ্যাে কথা আপনাকে বড় বিপদেও ফেলে দিতে পারে।
  • যেখানে সেখানে ময়লা ফেলার অভ্যাস থাকলে তা বাদ দিন। এতে পরিবেশ যেমন দূষিত হয়। স্বাস্থ্যের জন্য়ও ক্ষতিকর। 

 

সূত্র: গোলস অন ট্র্যাক

Link copied!