• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২৮ মে, ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৯ জ্বিলকদ ১৪৪৫

জবি রেজিস্ট্রার ওহিদুজ্জামানের চাকরির মেয়াদ বাড়ল


জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি
প্রকাশিত: জুন ১৩, ২০২৩, ০২:৩৭ পিএম
জবি রেজিস্ট্রার ওহিদুজ্জামানের চাকরির মেয়াদ বাড়ল

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী মো. ওহিদুজ্জামানকে আরও এক বছরের জন্য চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। অবসরোত্তর ছুটি ও এ সংশ্লিষ্ট সুবিধাদি স্থগিতের শর্তে বুধবার (১৪ জুন) থেকে এ মেয়াদ কার্যকর হবে।

মঙ্গলবার (১৩ জুন) বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার দপ্তরের সংস্থাপন শাখার উপপরীক্ষা নিয়ন্ত্রক আবদুল হালিম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এ ব্যাপারে একটি প্রজ্ঞাপনও জারি করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, সরকারি চাকরি আইন ২০১৮ এর ৪৯ ধারা অনুযায়ী জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী মো. ওহিদুজ্জামানকে তার অভোগকৃত অবসরোত্তর ছুটি ও এ সংশ্লিষ্ট সুবিধাদি স্থগিতের শর্তে আগামী ১৪ জুন অথবা যোগদানের দিন থেকে পরবর্তী এক বছরের জন্য জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার পদে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ করা হলো।

এতে আরও বলা হয়, এ চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের শর্তাবলি অনুমোদিত চুক্তিপত্র দ্বারা নির্ধারিত হবে। চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের ক্ষেত্রে অর্থ মন্ত্রণালয়ের ২০১৬ সালের ২৬ জানুয়ারির প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী মাসিক বেতন নির্ধারিত হবে এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়ম অনুসারে অন্যান্য ভাতাদি ও সুবিধা প্রাপ্য হবেন।

২০০৯ সালের ১৫ অক্টোবর প্রকৌশলী মো. ওহিদুজ্জামান জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার পদে যোগদান করেন। দীর্ঘ প্রায় ১৪ বছর দায়িত্ব পালন শেষে চলতি বছরের ১৩ জুন তার মেয়াদ শেষ হচ্ছে। মেয়াদ শেষের পরদিন থেকেই আরও এক বছরের জন্য তিনি চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ পেলেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের বৃহৎ স্বার্থে রেজিস্ট্রার হিসেবে প্রকৌশলী ওহিদুজ্জামানকে পুনঃনিয়োগ দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের রুটিন দায়িত্বে থাকা অধ্যাপক ড. কামালউদ্দীন আহমদ।

অধ্যাপক ড. কামালউদ্দীন আহমদ বলেন, “জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন ক্যাম্পাসের প্রজেক্টের কাজ চলমান রয়েছে। ২০২৪ সালের মধ্যে প্রজেক্টের প্রথম ধাপের কাজ শেষ করতে হবে। বর্তমানে রেজিস্ট্রার বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিকল্পনা দপ্তরের পরিচালক ও নতুন ক্যাম্পাসের প্রকল্পের ভারপ্রাপ্ত পরিচালকের দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি দীর্ঘদিন যাবৎ বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রারের দায়িত্ব পালন করে আসছেন। তিনি নিঃসন্দেহে একজন অভিজ্ঞ রেজিস্ট্রার। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সার্বিক দিক বিবেচনা করেই তাকে নিয়োগ দিয়েছেন।”

তিনি বলেন, “ওহিদুজ্জামান শুরু থেকেই নতুন ক্যাম্পাসের কাজের সঙ্গে জড়িত আছেন। এছাড়া জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ঢাকা কেন্দ্রীক একটি বড় ও সনামধন্য বিশ্ববিদ্যালয়। ছোট এই ক্যাম্পাসে ৩৬টি বিভাগ, ২টি ইন্সটিটিউট ও ৭টি অনুষদ রয়েছে। আমাদের লোকবলও সংকট আছে। সবমিলিয়ে এখানে রেজিস্ট্রার হিসেবে একজন অভিজ্ঞ লোক দরকার।”

কামালউদ্দীন আরও বলেন, “নতুন কাউকে দায়িত্ব দিলে তার কাজ বুঝতে কমপক্ষে ছয়মাস সময় লেগে যাবে। আমরা রেজিস্ট্রারকে মাত্র এক বছরের জন্য নিয়োগ দিয়েছি। উপাচার্য প্রয়োজন মনে করলে একবছরের আগেও বিজ্ঞপ্তি দিয়ে নতুন রেজিস্ট্রার নিয়োগ দিতে পারেন।”

তিনি বলেন, “ইউজিসি থেকে চিঠি এলেও এখন আমরা এ ব্যাপারে কিছুই করতে পারব না। উপাচার্য দেশে ফিরলে আলাপ-আলোচনা করে ইউজিসিকে বিষয়টি জানাবেন। ইউজিসির সঙ্গে কথা বলেই উপাচার্য এ নিয়োগ দিয়েছেন।” 

শিক্ষা বিভাগের আরো খবর

Link copied!