• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২৮ মে, ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৯ জ্বিলকদ ১৪৪৫

ছোট ভাইয়ের মৃত্যুশোক সইতে না পেরে বোনের আত্মহত্যা


ভৈরব (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি
প্রকাশিত: জুন ১৩, ২০২৩, ০৯:৪৭ এএম
ছোট ভাইয়ের মৃত্যুশোক সইতে না পেরে বোনের আত্মহত্যা

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে ছোট ভাইয়ের মৃত্যু শোক সইতে না পেরে ছাদ থেকে পড়ে নাজা বেগম (১৮) নামের এক তরুণী আত্মহত্যা করেছেন।

সোমবার (১২ জুন) ভৈরব পৌর শহরের চণ্ডীবের মোল্লাবাড়ি এলাকা এ ঘটনা ঘটে।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, নীরব (১২) ও নাজার বাড়ি পৌর শহরের চণ্ডীবের মোল্লাবাড়ি। বাবা বাছির মোল্লা ১০ নম্বর ওয়ার্ড যুবদলের সভাপতি। তিন ভাইবোনের মধ্যে নাজা দ্বিতীয়, আর নীরব সবার ছোট। নীরব চণ্ডীবের এলাকার ব্লু-বার্ড স্কুলের ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিল। নাজা ছিলেন রফিকুল ইসলাম মহিলা কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী।

বেলা আড়াইটার দিকে স্কুল থেকে ফিরে বাড়ির পাশের একটি মাঠে খেলতে যায় নীরব। মাঠ লাগোয়া খাল। খালের পানিতে পা ভেজাতে গিয়ে পানিতে পড়ে তলিয়ে যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। খবর পেয়ে পরিবারের অন্য সদস্যদের সঙ্গে হাসপাতালে ছুটে আসেন নাজাও। এসেই মেঝেতে লুটিয়ে পড়েন। তখন নাজা বলছিলেন, “আমার ভাই ছাড়া আমি বাঁচব না।”

লাশের সঙ্গে নাজাও বাড়িতে আসেন। বাড়ির সামনে লাশ রাখার কয়েক মিনিটের মধ্যে নাজা ছাদ থেকে লাফিয়ে নিচে পড়ে যান। মুমূর্ষু অবস্থায় প্রথমে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। রাত নয়টার দিকে হাসপাতালে নাজা মারা যান।

ভৈরব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মাকছুদুল আলম বলেন, পরিবারের সদস্যদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে নীরব মোল্লার লাশ বিনা ময়নাতদন্তে দাফনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। তবে নাজার মৃত্যুর তথ্য তার জানা নেই।

Link copied!