• ঢাকা
  • বুধবার, ২৪ জুলাই, ২০২৪, ৯ শ্রাবণ ১৪৩১, ১৮ মুহররম ১৪৪৫

কবর জিয়ারত করে ফেরার পথে ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা


বগুড়া প্রতিনিধি
প্রকাশিত: মে ৪, ২০২২, ০২:০৭ পিএম
কবর জিয়ারত করে ফেরার পথে ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা

বগুড়ায় মায়ের কবর জিয়ারত করে ফেরার পথে আব্দুর রাজ্জাক সরকার (৬৫) নামের এক ব্যবসায়ীকে গুলি করে ও কুপিয়ে হত্যা করেছে তারই ভাতিজার নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী। এ সময় উভয় পক্ষের মধ্যে গুলিবিনিময়ের ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়েছেন আরও তিনজন।

মঙ্গলবার (৩ মে) রাত সাড়ে ১২টার দিকে বগুড়া সদরের মহিষবাথান বন্দরে এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার পর পুলিশ সেখান একটি বিদেশি পিস্তল ও কয়েকটি গুলির খোসা উদ্ধার করেছে।

নিহত আব্দুর রাজ্জাক সরকার মহিষবাথান গ্রামের মৃত আব্দুল লতিফ সরকারের ছেলে। তিনি আমেরিকার নাগরিকত্ব পেয়ে স্ত্রী সন্তান নিয়ে সেখানেই বসবাস করতেন। বগুড়া শহরে ও গ্রামের বাড়িতে তার ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান ও  জায়গাজমি থাকায় বছরের অর্ধেক সময় বগুড়ায় বসবাস করেন।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয়রা জানান, এক মাস আগে আব্দুর রাজ্জাক সরকারের মা মারা যান। মঙ্গলবার ঈদের দিন রাতে তিনি বগুড়া শহর থেকে একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশা ভাড়া করে মহিষবাথান গ্রামে যান। সেখানে মায়ের কবর জিয়ারত শেষে মহিষবাথান বন্দরে দোকানে বসে চা খাচ্ছিলেন। এমন সময় তার ভাতিজা ওমর খৈয়ম সরকার রুপনের নেতৃত্বে ৮-১০টি মোটরসাইকেল যোগে একদল সন্ত্রাসী তাকে ঘিরে ধরে। এরপর একজন ধারালো অস্ত্র দিয়ে আব্দুর রাজ্জাক সরকারকে কোপ দেয়। তিনি তার ব্যবহৃত লাইসেন্স করা পিস্তল দিয়ে গুলি ছুড়তে ছুড়তে পালানোর চেষ্টা করেন। দৌড়ে গিয়ে ত্রিমোহনীতে আব্দুর রাজ্জাক সরকার রাস্তায় পড়ে যান। এ সময় সন্ত্রাসী তাকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে পালিয়ে যায়।

বগুড়া সদর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জাহিদুল হক বলেন, সন্ত্রাসীদের মধ্যে গুলিবিদ্ধ জনি ও আল আমিনকে আটক দেখানো হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে ১টি বিদেশি পিস্তল ও বেশ কিছু গুলির খোসা জব্দ করা হয়েছে। এলাকায় পুলিশের অভিযান চলছে।

Link copied!