• ঢাকা
  • শনিবার, ১৮ মে, ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১,

মোবাইল রেখে পড়তে বলায় গায়ে আগুন দিয়ে আত্মহত্যা


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: নভেম্বর ২১, ২০২১, ০৭:৩২ পিএম
মোবাইল রেখে পড়তে বলায় গায়ে আগুন দিয়ে আত্মহত্যা

শিক্ষার্থীদের মোবাইল আসক্তি যেন মহামারির মত ছড়িয়ে পড়েছে সারা বিশ্বে। বাংলাদেশের মত প্রতিবেশী ভারতেও সন্তানদের মোবাইলের নেশা ছাড়াতে হিমশিম খাচ্ছেন অভিভাবকরা।

অনলাইনে ক্লাস শুরুর পর অনেক শিক্ষার্থীই বাসা থেকে ব্যক্তিগত ফোন পেয়েছেন। তবে এতে পড়াশোনার চাইতে অনেকেরই গেমিং, ফেসবুক কিংবা ইন্টারনেটে সময় কাটছে বেশি।

পশ্চিমবঙ্গের পশ্চিম মেদিনীপুরের জেলায় তেমনই এক ছাত্রীকে পড়াশোনার জন্য বাবা-মা শাসন করায় অভিমানে আত্মহত্যা করেছেন তিনি।

হিন্দুস্তান টাইমস জানায় দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রীর বর্ণালী পাল। গড়বেতার ধোবাবেরিয়া গ্রামের স্কুলে দ্বাদশ শ্রেণিতে পড়তেন। পরিবারের দাবি, ইদানিং বেশিরভাগ সময় মোবাইলেই কাটাতেন বর্ণালী। 

পড়াশোনাতে মনোযোগ ছিল না মোটেই। গভীর রাতেও মোবাইল নিয়েই ব্যস্ত থাকতেন। মোবাইলের নেশা ছাড়ানোর জন্য অনেক চেষ্টা করেন বাবা-মা। পড়াশোনায় মন দেওয়ার জন্য মেয়েকে বকাবকি করায় অভিমান করে বাড়ি ছেড়ে চলে যান তিনি।

শেষ পর্যন্ত পুলিশের সহায়তায় তার খোঁজ পাওয়া যায়। তবে বাড়িতে ফিরিই পরদিন শনিবার সকালে নিজের শরীরে আগুন দেন ওই ছাত্রী। 
কিছু বুঝে ওঠার আগেই জ্বলে যায় পুরো শরীর। উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

Link copied!