• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন, ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ৬ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

শিশুর শুষ্ক ত্বকের যত্ন নেবেন যেভাবে


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১৩, ২০২৩, ০৪:১৫ পিএম
শিশুর শুষ্ক ত্বকের যত্ন নেবেন যেভাবে
সংগৃহীত

শিশুদের ত্বক খুবই কোমল ও সংবেদনশীল থাকবে, এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু অনেক শিশুর ক্ষেত্রে দেখা যায় তাদের ত্বক রুক্ষ-শুষ্ক হয়ে গেছে। এটি হতে পারে আবহাওয়ার পরিবর্তন, দীর্ঘ সময় এয়ারকন্ডিশন ঘরে থাকার ফলে, আঁটসাঁট পোশাক পরা, সর্বোপরি পানির অভাবে ডিহাইড্রেশনের কারণে শিশুদের ত্বক শুষ্ক হতে শুরু করে। অনেক অভিভাবক আছেন শিশুদের শুষ্ক ত্বকের সমস্যাকে গুরুত্ব দিতে চান না। এটিকে রোগ হিসেবেই বিবেচনা করেন না। তবে এর কারণে শিশুরা বিরক্তি বোধ করে ও অ্যালার্জির মতো সমস্যার মুখোমুখিও হয়। এর কারণে শিশুর ফাটা ত্বক, ঠোঁট ফাটা, ত্বকে চুলকানির মতো সমস্যা তৈরি হয়।

রোধ করবেন যেভাবে
শুষ্ক ত্বকের সমস্যা থেকে বাঁচাতে শিশুকে পানিশূন্য হতে দেওয়া যাবে না। সব সময় তাকে হাইড্রেটেড রাখতে হবে। পানির অভাব না থাকলে শিশুর ত্বক শুষ্ক হবে না। পানির অভাব থাকলে শিশুর ত্বক শুষ্ক হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়। শিশুর বয়স যদি ৫-৮ বছরের মধ্যে হয়, তাহলে তাকে প্রতিদিন কমপক্ষে ৫ কাপ পানি দিতে হবে, ৯-১২ বছরের শিশুদের জন্য, ৭ কাপ পানি এবং ১৩ বছরের বেশি বয়সী শিশুদের জন্য, কমপক্ষে ৯ কাপ পানি খাওয়ানো উচিত। পানির অভাব না থাকলে শিশুর ত্বক শুষ্ক হবে না।

আবহাওয়ায় পরিবর্তন

শিশুদের ত্বকের শুষ্কতা দূর করতে নিয়মিত বিরতিতে তেল দিয়ে ম্যাসাজ করুন। এতে ত্বক থেকে শুষ্কতা দূর করবে। এর পাশাপাশি শিশুর স্বাস্থ্যও ভালো থাকবে। পরিবর্তনশীল আবহাওয়া থেকে শিশুদের রক্ষা করুন। আবহাওয়ায় পরিবর্তনের সময় শিশুদের বিশেষ যত্ন নিন। গরম হোক বা ঠান্ডা, হঠাৎ করে আবহাওয়ার পরিবর্তন শিশুর ওপর খারাপ প্রভাব ফেলতে পারে। সে জন্য তাদের যত্ন নেওয়া গুরুত্বপূর্ণ।

প্রতিটি ঋতুতে বিভিন্নভাবে শিশুর ত্বকের যত্ন নিতে হবে। হালকা গরম পানিতে গোসল করান তাকে। শুধু কুসুম গরম পানি পান করতে দিন। এর সাহায্যে শিশুর শরীরে পানির ভারসাম্য যেমন ঠিক থাকবে তেমনি তার ত্বকও ময়েশ্চারাইজড থাক।

গোসল করানোর সময়

শিশুরা পানিতে থাকতে পছন্দ করে। বিশেষ করে গোসল করানোর সময়েই সেটি বোঝা যায়। ঠান্ডা লাগবে ভেবে অনেক সময় বাবা-মা শিশুকে বেশিক্ষণ পানিতে থাকতে দেন না। শিশুকে গোসলের জন্য পর্যাপ্ত সময় দিতে হবে। এতে তাদের ত্বক শুষ্ক হওয়া কমে গিয়ে কোমলতা বজায় থাকবে।

Link copied!