• ঢাকা
  • রবিবার, ২১ জুলাই, ২০২৪, ৬ শ্রাবণ ১৪৩১, ১৪ মুহররম ১৪৪৫

হানিমুনেই আমাকে মেরে ফেলতে চেয়েছিল জনি: অ্যাম্বার


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: মে ১৯, ২০২২, ১২:০২ পিএম
হানিমুনেই আমাকে মেরে ফেলতে চেয়েছিল জনি: অ্যাম্বার

“হানিমুনের সময়েই অ্যাম্বার হার্ডকে পৃথিবী থেকে সরিয়ে দিতে চেয়েছিলেন হলিউড অভিনেতা জনি ডেপ। এমনকি, মাদকাসক্ত জনি সিগারেটের ছ্যাঁকা দিতেন অ্যাম্বারের গায়ে।” আদালতে এমনই অভিযোগ করেছেন জনি ডেপের প্রাক্তন স্ত্রী অ্যাম্বার।

এক সময় নিবিড় ভালবাসার সম্পর্ক ছিল জনি ডেপ আর অ্যাম্বারের। কিন্তু তিক্ততা এমন জায়গায় পৌঁছেছে, কিছুই আর ঠিক হওয়ার নয়, এমনটাই জানিয়েছেন অ্যাম্বার। এ বিষয়ে আদালতে মামলা হয়েছে। সেখানে পারস্পরিক অভিযোগ-পাল্টা অভিযোগ উঠে আসছে।

শুনানি থেকে স্পষ্ট যে, দু’জনের মধ্যে অশান্তি চরমে উঠেছিল ২০১৫-র পর থেকে। ২০১৭-তে তাদের বিবাহ বিচ্ছেদ হয়। কিন্তু তারপরেও কাঁদা ছোড়াছুড়ি শেষ হয়নি। ৫০ লক্ষ ডলার খরচ করে অ্যাম্বারের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা ঠুকেছিলেন জনির বিরুদ্ধে। সেই মামলার শুনানি চলছে ভার্জিনিয়ার আদালতে।

আদালতে অ্যাম্বার জানান, তিনি যে এত দিন বেঁচে আছেন, সেটাই আশ্চর্য। ২০১৫ সালে মধুচন্দ্রিমা সফরে মৃত্যুভয় প্রত্যক্ষ করেছিলেন তিনি। জনি তাকে ওরিয়েন্ট এক্সপ্রেসের মধ্যেই গলা টিপে ধরেছিলেন। ঘাড় ধরে ফেলে দিতে গিয়েছিলেন চলন্ত ট্রেন থেকে।

অ্যাম্বারের দাবি, সেটাই ছিল শুরু। এরপর প্রায় প্রতি দিনই গার্হস্থ্য হিংসার শিকার হয়েছেন তিনি। অভিযোগ, জনি তাঁর ওপর সমস্ত রকম অত্যাচার করতেন। সেই সঙ্গে জনিকে মাদকাসক্ত এবং স্বেচ্ছাচারী হিসেবেও উল্লেখ করেন তার প্রাক্তন স্ত্রী।

যদিও সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ‘চার্লি অ্যান্ড দ্য চকোলেট ফ্যাক্টরি’র অভিনেতা। জনির পক্ষের উকিলরাও প্রতিনিয়ত নিরস্ত করার চেষ্টা করে চলেছেন অ্যাম্বারকে। তাদের পাল্টা অভিযোগ, অ্যাম্বার জনিকে হেনস্থা করেছেন। 

 

 

Link copied!