• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০, ১১ শা’বান ১৪৪৫

নারী ফুটবলারকে চুমু, ক্ষমা চাইলেন স্পেনের বোর্ড সভাপতি


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: আগস্ট ২২, ২০২৩, ১১:১৩ এএম
নারী ফুটবলারকে চুমু, ক্ষমা চাইলেন স্পেনের বোর্ড সভাপতি
ছবি: সংগৃহীত

প্রথমবারের মতো নারী বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠেই বাজিমাত করেছে স্পেন। ইংল্যান্ডকে ১-০ গোলে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে তারা। প্রথম বিশ্বকাপ জয়ের পর হয়তো দেশটি ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি লুইস রুবিয়ালস একটু বেশিই আবেগতাড়িত হয়ে পড়েছিলেন। সেজন্য তিনি বিশ্বকাপের পুরস্কার বিতরণী মঞ্চে মেডেল নিতে আসা স্প্যানিশ মিডফিল্ডার হেনিফার হেরমোসোকে ঠোঁটে চুমু দিয়ে বসেন। এই ঘটনার পর থেকেই তীব্র সমালোচনার মুখে পড়তে হয় বোর্ড সভাপতিকে। এরপর অবশ্য ভুল বুঝতে পেরে ক্ষমা চেয়েছেন লুইস রুবিয়ালস।

রুবিয়ালস স্পেনের ফুটবল সভাপতি থাকাকালীন বর্তমানে নারী অনূর্ধ্ব-১৭ এবং অনূর্ধ্ব-২০ বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন তারা। আর সর্বশেষ নারী বিশ্বকাপতো তাদের হাতেই উঠেছে। যার হাত ধরে বৈশ্বিক আসরে এতো সাফল্য ধরা দিয়েছে সেজন্য তিনি হয়তো একটু বেশিই আবেগতাড়িত হয়ে পড়েন। তার এই অতিরিক্ত আবেগতাড়িত হওয়ার কারণে নিজেকে সমালোচনার মুখে ঠেলে দিয়েছেন।

ফাইনালের দিন সভাপতি হেরমোসোকে শুধু চুমুই দেননি। বিশ্বকাপ জেতার পর ফুটবলারা যখন বিশ্বকাপ নিয়ে উদযাপন ছবি তুলছিলেন তখন রুবিয়ালস বারবার ছবিতে পোজ দিতে ঢুকে যান। এছাড়াও নারী ফুটবলারদের হাতে থেকে শিরোপা নিয়ে স্পেনের রানিকে দেওয়া, লকার রুমে গিয়ে হাসিঠাট্টা করা হয়।

এই নিয়ে প্রথম দিকে সমালোচনা হলেও বোর্ড প্রেসিডেন্ট কর্নপাত করেননি। এসময় ‘রেডিও মার্কা’ কে রুবিয়ালস বলেন, “হেনির সঙ্গে চুমু? মূর্খ লোকের তো অভাব নেই। দুইজন মানুষের স্নেহপূর্ণ মুহূর্ত নিয়ে এসব মূর্খের কথা শোনার সময় নেই। আমরা চ্যাম্পিয়ন, আমি এটা নিয়েই আছি।”

তবে তিনি সোমবার (২১ আগস্ট) তার ভুল বুঝতে পারেন। পরে তার ভুল স্বীকার করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একটা ভিডিও পোস্ট করেন। লুইস রুবিয়ালস ভিডিওতে বলেন, “আমাকে স্বীকার করতেই হবে, আমি সম্পূর্ণ ভুল ছিলাম। আমাকে ক্ষমা চাইতে হবে। এ থেকে শিক্ষা নিতে হবে। আমাকে বুঝতে হবে, যখন সভাপতির মতো দায়িত্বে থাকবেন, আপনাকে আরও সতর্ক হতে হবে।”

Link copied!