• ঢাকা
  • রবিবার, ১৯ মে, ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১,

গাজায় ইসরায়েলের বিমান হামলা, নিহত ১২


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: মে ৯, ২০২৩, ১০:৩৩ এএম
গাজায় ইসরায়েলের বিমান হামলা, নিহত ১২

গভীর রাতে ফিলিস্তিনের গাজায় বিমান হামলা চালিয়েছে ইসরায়েলি বাহিনী। এতে সশস্ত্র গোষ্ঠী ইসলামিক জিহাদের তিন নেতাসহ ১২ ফিলিস্তিনি নিহত এবং আহত হয়েছেন আরও ২০ জন বেসামরিক নাগরিক। ইসরায়েলি সামরিক বাহিনীর দাবি, ফিলিস্তিনের সশস্ত্র গোষ্ঠীটির আস্তানা লক্ষ্য করে হামলা চালানো হয়েছে।

মঙ্গলবার (৯ মে) কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে। পিআইজে বলেছে, তাদের তিন নেতা- জিহাদ আল-ঘানাম, খলিল আল-বাহতিনি এবং তারিক ইজ আল-দীন এবং তাদের স্ত্রী সন্তানসহ নিহত হয়েছেন। তবে তাদের স্ত্রীদের, বা কতজন শিশুকে হত্যা করা হয়েছে এবং তাদের বয়স সম্পর্কে বিস্তারিত জানায়নি তারা।

ইসরায়েলের সেনাবাহিনী বলেছে, তারা ফিলিস্তিনি ইসলামিক জিহাদ আন্দোলনের সদস্যদের লক্ষ্যবস্তুতে হামলা চালিয়েছে। ইসরায়েলের সামরিক বাহিনী গাজা ভূখণ্ডের ৪০ কিলোমিটারের (২৫ মাইল) মধ্যে থাকা ইসরায়েলি বাসিন্দাদের নির্ধারিত বোমা আশ্রয়কেন্দ্রের কাছাকাছি থাকার জন্য নির্দেশনা জারি করেছে।

আল-জাজিরার প্রতিবেদক ইউমনা এল সাঈদ জানান, ৯ মে স্থানীয় সময় রাত ২টার দিকে বোমা বিস্ফোরণের শব্দে কেঁপে উঠে গাজা উপত্যকা। বিভিন্ন আবাসিক ভবন থেকে বিস্ফোরণের শব্দ শোনা যায়।

গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাতে তিনি বলেন, “এখনো সঠিকভাবে জানা যায়নি কতজন আহত হয়েছেন। আর নিহতদের পরিচয় এখনো পাওয়া যায়নি। আমাদের কাছে ১০ জন নিহতের তথ্য আছে। যখনই কোনো অ্যাপার্টমেন্ট লক্ষ্যবস্তু করা হয় তখনই বেসামরিক ফিলিস্তিনির হতাহতের ঘটনা ঘটে। হামলায় নিহত ব্যক্তিদের নাম কী বা কতজন আহত হয়েছেন এটা এখনও পুরোপুরি স্পষ্ট নয়। আমাদের কাছে শুধুমাত্র নিশ্চিত করা হয়েছে যে, গাজা উপত্যকার বিভিন্ন এলাকায় সর্বশেষ বিমান হামলায় কমপক্ষে ১২ জন নিহত হয়েছেন।’

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, মঙ্গলবার ভোরে গাজা শহরের একটি অ্যাপার্টমেন্ট বিল্ডিংয়ের ওপরের তলায় এবং দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর রাফাহ শহরের একটি বাড়িতে বিস্ফোরণ ঘটে।

হামাস নেতা ইসমাইল হানিয়াহ হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, বিমান হামলায় ফিলিস্তিনের ইসলামিক জিহাদ (পিআইজে) আন্দোলনের তিন সদস্যের হত্যার জন্য ইসরায়েলকে ‘মূল্য দিতে হবে’।

Link copied!