• ঢাকা
  • রবিবার, ২১ জুলাই, ২০২৪, ৬ শ্রাবণ ১৪৩১, ১৪ মুহররম ১৪৪৫

ট্রেনের টিকিটে অতিরিক্ত মূল্য, ২২ বছর পর মামলা জিতলেন যাত্রী


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: আগস্ট ১১, ২০২২, ০৮:০১ পিএম
ট্রেনের টিকিটে অতিরিক্ত মূল্য, ২২ বছর পর মামলা জিতলেন যাত্রী

ভারতে ট্রেনের টিকিটের অতিরিক্ত দাম রাখার অভিযোগে দায়ের করা এক মামলায় প্রায় ২২ বছরের আইনি লড়াই জিতেছেন এক ব্যক্তি। 

বিবিসি জানায়, তুঙ্গনাথ চতুর্বেদী নামের এক আইনজীবীর কাছ থেকে ১৯৯৯ সালে দুটি ট্রেনের টিকিটের জন্য ২০ রুপি অতিরিক্ত ভাড়া রাখা হয়। উত্তর প্রদেশ রাজ্যের মথুরা সেনানিবাস রেলওয়ে স্টেশনে এই ঘটনা ঘটে। 

ঘটনার পর দায়ের করা মামলায় গত সপ্তাহে ভোক্তা আদালত চতুর্বেদীর পক্ষে রায় দেন। সুদসহ তার সেই অর্থ ফেরত দিতে ভারতের রেলওয়েকে নির্দেশ দেন আদালত।

বিবিসিকে তুঙ্গনাথ চতুর্বেদী বলেন, ৩৫ রুপির দুটি টিকেটের জন্য ১০০ রুপি দিলে কেরানি ৭০ রুপির পরিবর্তে ৯০ রুপি রেখে তাকে ১০ রুপি ফেরত দিয়েছিলেন। ক্লার্ককে অতিরিক্ত দাম কেন রাখছেন জিজ্ঞাসা করেও কোন জবাব পাননি তিনি।

এর পর তিনি বুকিং ক্লার্কের বিরুদ্ধে মথুরার ভোক্তা আদালতে মামলা করার সিদ্ধান্ত নেন। ভারতের বিচারব্যবস্থার ধীর গতির কারণে সেই মামলার নিষ্পত্তিতে লেগে যায় ২২ বছর।

৬৬ বছর বয়সী চতুর্বেদী বিবিসিকে বলেন, “এই মামলার ১০০ টিরও বেশি শুনানিতে অংশ নিয়েছি আমি। রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ মামলাটি খারিজ করারও চেষ্টা করেছে। এই লড়াইয়ে পেছনে আমার যে শক্তি ও সময় ব্যয় হয়েছে তার মূল্য কেউ দিতে পারবে না।”

অবশেষে এই দীর্ঘ লড়াইয়ের পর রায়ে রেলওয়েকে ১৫ হাজার রুপি জরিমানা প্রদানের নির্দেশ দেন আদালত। এছাড়াও রেলওয়েকে ১৯৯৯ থেকে ২০২২ সাল পর্যন্ত সেই ২০ রুপি বছরে ১২%  সুদসহ ফেরত দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ৩০ দিনের মধ্যে অর্থ প্রদান না করা হলে সুদের হার বাড়িয়ে ১৫%  করা হবে বলেও জানান আদালত।

যদিও চতুর্বেদী জানান, তিনি যে ক্ষতিপূরণ পেয়েছিলেন তা একেবারেই নগণ্য। এ মামলার কারণে যে মানসিক যন্ত্রণার ভোগ করতে হয়েছে সে তুলনায় এটি কিছুই না। তবে আদালতের রায়কে স্বাগত জানিয়ে তিনি বলেন, “ক্ষতিপূরণের অংকটা গুরুত্বপূর্ণ নয়। ন্যায়বিচারের জন্য আর দুর্নীতির বিরুদ্ধে লড়াই করাই আমার লক্ষ্য ছিল। যেহেতু আমি নিজে একজন আইনজীবী, তাই আমার আইনজীবী নিয়োগের খরচ লাগেনি। আদালতে যাতায়াতের খরচ বহন করতে হয়না। তবে অন্যদের জন্য এ ধরণের মামলা ব্যয়বহুল হতে পারে।”

Link copied!