• ঢাকা
  • বুধবার, ২৬ জুন, ২০২৪, ১১ আষাঢ় ১৪৩১,

পাকিস্তানের কন্ডিশনে খেলা কঠিন : তাসকিন


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ৬, ২০২৩, ১০:১৫ এএম
পাকিস্তানের কন্ডিশনে খেলা কঠিন : তাসকিন
ছবি: সংগৃহীত

বর্তমান বাংলাদেশের পেস বোলিংয়ের নেতৃত্ব দেন তাসকিন আহমেদ। এই পেসার আফগানিস্তানের বিপক্ষে নিজের কাজটা ঠিকঠাক ভাবেই পালন করেছিলেন। এই ম্যাচে তাসকিন ৮ ওভার ৩ বল করে ৪৪ রান খরচ করে ৪ উইকেট নেন। তার এমন বোলিং পারফরম্যান্সের কারণে আফগানদের বড় ব্যবধানে হারিয়ে এশিয়া কাপের সুপার ফোরে ওঠে টাইগাররা। এই পর্বের প্রথম ম্যাচে বুধবার (৬ সেপ্টেম্বর) লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে স্বাগতিক পাকিস্তানের বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। স্বাগতিকদের ব্যাটিংয়ে লাইন-আপে বাবর আজম, মোহাম্মদ রিজওয়ানদের মতো বিশ্বসেরা ব্যাটার রয়েছে। তাই তাদের বিপক্ষে বোলিং করা সহজ হবে না স্বীকার করলেন তাসকিন। তবে নিজেদের ওপর ভরসা রাখছেন এই পেসার।

ম্যাচের আগের দিন বিসিবির পাঠানো ভিডিওতে তাসকিন, “এরকম উইকেটে আসলে বোলারদের মার্জিন অনেক ছোট থাকে। একটু এদিক-ওদিক হলে সেটা বাউন্ডারি হওয়ার চান্স বেশি থাকে। অনেক একুরেট বল করতে হয় ভেরিয়েশনের সঙ্গে। পাকিস্তানের ব্যাটিং পৃথিবীর অন্যতম সেরা। সহজ হবে না। কিন্তু আমাদের প্রতি বিশ্বাস আছে যদি সেরা বোলিংটা করতে পারি ছোট রানে আটকাতে পারবো।”

এই পেসার আরও বলেন, “আসলে লাহোরে ব্যাটিংবান্ধব উইকেট থাকবে স্বাভাবিকভাবে। যেদিনই আমরা খেলবো, উইকেট বা কন্ডিশন আমাদের নিয়ন্ত্রণে থাকবে না। দ্রুত মানিয়ে নিতে পেরেছিলাম আমরা (আফগানিস্তানের বিপক্ষে)। প্রতিটা বোলারই দারুণ করেছে। আমরা সামনের ম্যাচগুলোতেও এখান থেকে ভালো করার চেষ্টা করবো। এটা ভালো যে আমরা খেলছি বিভিন্ন কন্ডিশনে এবং অভিজ্ঞতার সঙ্গে দ্রুত মানিয়ে নিতে পারছি। আমাদের আসলে অ্যাকুরেসি ও ভেরিয়েশন খুব ভালো ছিল বিধায় আমরা ভালো করতে পেরেছি। আশা করি সামনেও এটা থাকবে।”

লাহোরে এই সময় তীব্র গরম। এমনিতে ৩৮ ডিগ্রি তাপমাত্রা থাকলেও সেটি অনুভব হচ্ছে আরও অনেক বেশি। এমন কন্ডিশনে খেলা সবার জন্যই কঠিন বলছেন তাসকিন। এজন্য মঙ্গলবার (৪ সেপ্টেম্বর) কোনো অনুশীলনও করেনি বাংলাদশে। সেটিও ভালো বলছেন জাতীয় দলের তারকা এই পেসার।

তাসকিন বলেন, “শুধু পেস বোলারদের জন্য না। যে কারো জন্যই এই কন্ডিশনে ক্রিকেট খেলাটা বেশ কঠিন। তাও যেহেতু এটা আমাদের নিয়ন্ত্রণের বাইরে। সেক্ষেত্রে আমরা আমাদের রিকভারিতে বেশি খেয়াল রাখছি। একই সঙ্গে টিমের ফিজিও-ট্রেনার তারাও আমাদের অনেক সাহায্য করছে। আমরা আমাদের নিজেদের যথেষ্ট যত্ন নেওয়ার চেষ্টা করেছি যেন আমরা সবাই সুস্থ থেকে খেলতে পারি। অবশ্যই চ্যালেঞ্জিং তাও এর মধ্যেই সেরাটা খেলতে হবে।”

তাসকিন আরও বলেন, “এই বিরতিটা আসলে দেওয়াতে ভালো হয়েছে। কারণ আমাদের সামনে অনেক খেলা। সেকেন্ড রাউন্ডের তিনটা ম্যাচ, এর মধ্যে ট্রাভেলিং আছে সামনে হোম সিরিজ তারপর বিশ্বকাপ। লম্বা সময় সামনে খেলা আছে। এজন্য আমাদের মানসিক ও শারিরীক দুটারই বিশ্রামের দরকার আছে। এ বিরতিতে আমরা কিছু টিম বন্ডিং এক্টিভিটিস করেছি। যে যার মতো জিম, রিহ্যাব সবকিছু করেছি। ওভারঅল একটা ভালো রিকভারি হয়েছে, যেটা দরকার ছিল। আশা করছি সামনের ম্যাচেও ভালো হবে।”

হ্যামস্ট্রিংয়ের চোটের কারণে এশিয়া কাপ থেকে ছিটকে গিয়েছে নাজমুল হোসেন শান্ত। এই টুর্নামেন্টে শান্ত দুই ম্যাচে দারুণ ব্যাট করেছেন। এক ম্যাচে হাফ সেঞ্চুরি এবং অন্য ম্যাচে সেঞ্চুরি সহ তার মোট রান ১৯৩। তাই শান্ত ছিটকে যাওয়াতে দলে শূন্যতা তৈরি হবে। তবে তাসকিন মনে করেন তার পরিবর্তে যে দলে জায়গা পাবেন সে দলের অভাব পূরণ করবেন। তাসকিন বলেন, “শান্ত ইনজুরি পড়ায় অবশ্যই আমাদের দলের জন্য একটু ক্ষতি হচ্ছে। তাও ওর জন্য শুভকামনা রইলো ও যেন দ্রুত সুস্থ হয়ে দলে ফিরে আসে। ও অসাধারণ ব্যাট করেছে দুটা ম্যাচেই। ওর অবদান খুবই ভালো ছিল। যেহেতু ও ইনজুরিতে পড়েছে দ্রুত সুস্থতা কামনা করছি। আশা করছি ওর পরিবর্তে যেই খেলবে ওর অভাবটা পূরণ করে দেবে।”

Link copied!