• ঢাকা
  • সোমবার, ১৫ জুলাই, ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১, ৮ মুহররম ১৪৪৫

সেমিতে হারের পর অবসরে ফরাসি তারকা জিরুদ


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: জুলাই ১০, ২০২৪, ০৫:৪২ পিএম
সেমিতে হারের পর অবসরে ফরাসি তারকা জিরুদ
অলিভিয়ের জিরুদ। ছবি : সংগৃহীত

স্পেনের বিরুদ্ধে চলতি ইউরোপীয় ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের সেমিফাইনাল ছিল ফ্রান্স জাতীয় দলের স্ট্রাইকার অলিভিয়ের জিরুদের শেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ। কারণ, ম্যাচশেষে জাতীয় দল থেকে অবসরের ঘোষণা দেন তিনি।

ম্যাচের পর কোচ দিদিয়ের ডেসচ্যাম্পস দুঃখ প্রকাশ করে বলেছেন, ‘এটা দুর্ভাগ্যজনক। জিরুদ তার ক্যারিয়ারটা জয় দিয়েই শেষ করতে পারতেন। সেটাই ভালো হতো। তবে সে অনেক দিয়েছে দেশকে, তার জন্য আমি তাকে ধন্যবাদ জানাতে চাই। আমাদের দলে অনেক তরুণ খেলোয়াড় আছে যারা ভবিষ্যতে আমাদের সাহায্য করবে।’

২৫ বছর বয়সে জিরুদ ফরাসি জাতীয় দলের হয়ে আত্মপ্রকাশ করেন। ২০১১ সালের ৩ নভেম্বর কোচ লরেন্ট ব্ল্যাঙ্কের তত্বাবধানে জিরুদকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং বেলজিয়ামের বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচের জন্য দলে ডাকা হয়। মাত্র আট দিন পর, তিনি কেভিন গেমিরোর বদলী হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে ম্যাচে দ্বিতীয়ার্ধে মাঠে নামেন প্রথম বারের মতো জাতীয় দলের জার্সি পড়ে।

ফ্রান্সের হয়ে তার তৃতীয় ম্যাচে জিরুদ প্রথম গোল করেন। জার্মানির বিপক্ষে ম্যাচের ২১ মিনিটে গোলটি করেন তিনি।

মজার বিষয় হল, জিরুদ তার সিনিয়র দলে অভিষেকের আগে ফ্রান্সের কোন বয়সভিত্তিক দলের হয়ে খেলেননি। ২০০১ সালে ক্লেয়ারফন্টেইন একাডেমিতে একটি প্রশিক্ষণ শিবিরে অংশগ্রহণের জন্য অনূর্ধ্ব-১৬ জাতীয় দলের কোচ পিয়েরে মানকোস্কি তাকে স্কোয়াডে রাখলেও তিনি সেখানে যোগ দেননি।  

ফ্রান্সের সিনিয়র জাতীয় দলের হয়ে, জিরুদ ১৩৭টি  ম্যাচ খেলে ৫৭টি গোল করেছেন, যা জাতীয় দলের হয়ে সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ড। থিয়েরি হেনরির রেকর্ড ভেঙে জিরুদ ফ্রান্সের সর্বোচ্চ গোলদাতা হন। এই মাইলফলকটি ২০২২ সালের বিশ্বকাপে পোল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রি-কোয়ার্টারে ফাইনালে স্পর্শ করেন তিনি।

জাতীয় দলের হয়ে জিরুদ তিনবার বড় টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলেছেন। ২০১৬ সালের ইউরো ও ২০২২ সালের বিশ্বকাপে রানার্সআপ হয় জিরুদদের ফ্রান্স। ২০১৮ সালে বিশ্বকাপের শিরোপা জেতেন জিরুদরা।  

 

 

খেলা বিভাগের আরো খবর

Link copied!