• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২১ জুন, ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১, ১৪ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

শতভাগ যাত্রী নিয়ে সড়কে গণপরিবহন


সংবাদ প্রকাশ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: আগস্ট ১১, ২০২১, ১০:৩১ এএম
শতভাগ যাত্রী নিয়ে সড়কে গণপরিবহন

সরকারের কঠোর বিধিনিষেধের টানা ১৯ দিন পর সড়কে গণপরিবহন চলাচল শুরু হয়েছে। 

বুধবার (১১ আগস্ট) ভোর থেকে রাজধানীতে গণপরিবহন চলাচল শুরু হয়। অর্ধেকসংখ্যক গণপরিবহন চলাচলের নির্দেশণা মানা হচ্ছে বলে জানিয়েছে মালিকপক্ষ।  

সকালে রাজধানীর বিভিন্ন সড়ক ঘুরে দেখা যায়, শতভাগ আসনে যাত্রী নিয়ে গণপরিবহন চলছে। তবে দাড়িয়ে যাত্রী নেওয়ার চিত্র চোখে পড়েনি। এদিকে গণপরিবহন চলাচলে সড়কে যানজটও বেড়েছে। স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষা করেই গন্তব্যে ছুটছে সাধারণ মানুষ।

গত রোববার (৮ আগস্ট) কঠোর বিধিনিষেধ শিথিল করে প্রজ্ঞাপন জারি করে সরকার।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, গণপরিবহনের শতভাগ আসনে যাত্রী বহন করা যাবে। তবে মোট পরিবহন সংখ্যার অর্ধেক গাড়ি সড়কে চলাচল করবে।

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্যাহ জানান, সরকারের নির্দেশনা মেনেই বর্ধিত ভাড়া না নিয়ে আগের ভাড়ায় গাড়ি চলাচল করছে।

গণপরিবহন চালুর বিষয়ে সার্বিক নির্দেশনা দিয়ে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ) বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে। নির্দেশনায় বলা হয়েছে-

আসন সংখ্যার অতিরিক্ত যাত্রী পরিবহন করা যাবে না। দাঁড়িয়ে নেওয়া যাবে না কোনো যাত্রী। সড়কপথে গণপরিবহন চলাচলের ক্ষেত্রে স্থানীয় প্রশাসন (সিটি করপোরেশন এলাকায় বিভাগীয় কমিশনার ও জেলা পর্যায়ে জেলা প্রশাসক) নিজ নিজ অধিক্ষেত্রের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, সংশ্লিষ্ট দপ্তর, সংস্থা, মালিক ও শ্রমিক সংগঠনের সঙ্গে আলোচনা করে প্রতিদিন মোট পরিবহন সংখ্যার অর্ধেক চালু করতে পারবে।

আগের ভাড়ায় গণপরিবহন চলবে। ৬০ শতাংশ বর্ধিত ভাড়া আর প্রযোজ্য হবে না। কোনোভাবেই আদায় করা যাবে না অতিরিক্ত ভাড়া।

গণপরিবহনের যাত্রী, চালক, সুপারভাইজার, কন্ডাক্টর, হেলপার-ক্লিনার এবং টিকিট বিক্রয় কেন্দ্রের দায়িত্বে নিয়োজিত ব্যক্তিদের মাস্ক পরিধান নিশ্চিত করতে হবে।

যাত্রার শুরু ও শেষে যানবাহন পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নসহ জীবাণুনাশক দিয়ে জীবাণুমুক্ত করতে হবে। এছাড়া যাত্রীদের হাতব্যাগ, মালপত্র জীবাণুনাশক ছিটিয়ে জীবাণুমুক্ত করার ব্যবস্থা করতে হবে যানবাহনের মালিকদের।

গণপরিবহনে স্বাস্থ্যবিধি সংক্রান্ত অন্যান্য প্রয়োজনীয় বিষয়াদি মেনে চলতে হবে। অন্যথায় সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ঈদুল আজহা উপলক্ষে সরকার বিধিনিষেধ শিথিল করলে গত ২২ জুলাই সড়কে গণপরিবহন চলাচল করেছে।

Link copied!