• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ০৫ ডিসেম্বর, ২০২৩, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪৩০, ২০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৫

বিয়েতে যেসব উপহার দিতে পারেন


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: নভেম্বর ২০, ২০২৩, ০১:৩৫ পিএম
বিয়েতে যেসব উপহার দিতে পারেন

আমাদের দেশে বছরের অন্যান্য সময়ের চেয়ে শীতের সময়ে বিয়ের অনুষ্ঠান বেশি হতে দেখা যায়। আর বিয়ের অনুষ্ঠান মানেই আনন্দ উৎসব। হৈ হৈ, নাচানাচি, হাসি-উল্লাস, খাওয়া-দাওয়া এসব। তবে এই বিয়ের উৎসবে যদি আপনি নিমন্ত্রিত হয়ে থাকেন তাহলে কিছু না কিছু উপহার তো নিয়ে যেতেই হবে। অনেকে আছেন বিয়ের অনুষ্ঠানে উপহার নিয়ে যাওয়া নিয়ে চিন্তায় পড়ে যান। তাদের জন্য রইল কিছু টিপস-

যেসব উপহার মানানসই

যেহেতু দুটি মানুষ নতুন জীবনে প্রবেশ করবেন তাই আগে তাদের প্রয়োজনটা মাথায় রাখা ভালো। তবে শখের বিষয়টিও ছেড়ে দেওয়া যাবে না। প্রয়োজন আর শখ, দুটিই থাকবে নতুন জীবনে। তাই কনের জন্য শাড়ি বা গয়না দেওয়া যেতে পারে। এছাড়া পার্স, বড় ব্যাগ বা বিশেষ কোনো মেকআপ কিটও দিতে পারেন। বরকে দেওয়া যেতে পারে পাঞ্জাবি, ঘড়ি।

  • নতুন সংসারের জন্য প্রয়োজনীয় অনেক কিছুই দেওয়া যেতে পারে। সেটি হতে পারে ব্লেন্ডার, জুসার, গ্রাইন্ডার, টোস্টার, রাইস কুকার, ননস্টিক হাঁড়িপাতিলের সেট, হটপট, ওয়াটার ফিল্টার, ভ্যাকুয়াম ক্লিনার, ইস্ত্রি কিংবা বিছানার চাদর, কুশন কভার, কম্বল। 
  • বর-কনের জন্য আলাদা করে থাকতে পারে কফি মগ। আজকাল সিরামিকের মগে ছবিসহ শুভেচ্ছাবাণী লিখিয়ে নেওয়া যায়। চাইলে পছন্দমতো ছবি ছাপিয়ে দেওয়া যেতে পারে মগের গায়ে। অনলাইনেও এসব মগের অর্ডার দেয়ার সুযোগ রয়েছে। চায়ের কাপের সেট, ছুরি-কাঁটা চামচের সেট বা ডিনার সেটও উপহার হিসেবে চমৎকার।
  • বিয়ের উপহার হিসেবে নকশা করা জুয়েলারি বক্সও উপহার দিতে পারেন। এছাড়া বিভিন্ন ধরনের গয়না, ঘর সাজানোর উপকরণ ও ট্রে পাওয়া যায় দোকানে। এগুলোও দিতে পারেন।
  • বিয়েতে বেশি উপহার দেওয়া হয় ক্রোকারিজ। এছাড়া স্বর্ণালংকার, শাড়ি, শো-পিস, ল্যাম্পশেড, জুয়েলারি বক্স, ফটোফ্রেম, ইলেকট্রনিক সামগ্রীও।
  • বন্ধুরা মিলে একত্রে একটু বড়সড় উপহারও দিতে পারেন। এলইডি টেলিভিশন, মাইক্রোওয়েভ ওভেন, ওয়াশিং মেশিন, এমনকি ছোটখাটো কোনো আসবাবও হতে পারে। অন্য রকম একটি উপহার হবে এটি। বরের যদি ছবি তোলার শখ থাকে, বিয়েতে তাকে ভালো ক্যামেরা উপহার দিতে পারেন সবাই মিলে। যদি দম্পতির পড়ার অভ্যাস থাকে তাহলে সুন্দর কোনো বুকশেলফও দেওয়া যেতে পারে।
  • মধুচন্দ্রিমার টিকিট দুটি যদি হয় বিয়ের উপহার, তাহলে আপনাকে নিশ্চিতভাবেই আলাদা করে মনে রাখবেন নবদম্পতি। বর-কনের সঙ্গে কথা বলে তাদের সুবিধামতো সময়ে মধুচন্দ্রিমার যাবতীয় ব্যবস্থা করে দিতে পারেন। চাইলে পরিবারের কয়েকজন সদস্য মিলেও এ ধরনের বড় কোনো উপহার দিতে পারেন।
  • মুঠোফোন, ট্যাব, আইপ্যাডসহ অন্যান্য গ্যাজেটও উপহার হিসেবে বেশ দারুণ। আয়না, ল্যাম্পশেড, ফটোফ্রেম, মোমদানি, নানা রকম মোম, ফুলদানি আর শোপিস তো হাতের নাগালেই পাওয়া যায়।
  • যদি কোনোকিছুই পছন্দসই না হয় তাহলে গিফট কার্ড বা ভাউচার দিতে পারেন। গিফট কার্ডের মাধ্যমে বর-কনে নিজেদের পছন্দমতো জিনিসটি কিনে নিতে পারবেন। 
Link copied!