• ঢাকা
  • রবিবার, ১৪ এপ্রিল, ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১,

ভারত-কানাডা সংকটের মধ্যে বৈঠকে বসছেন জয়শঙ্কর-ব্লিঙ্কেন


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২৩, ১০:৪০ এএম
ভারত-কানাডা সংকটের মধ্যে বৈঠকে বসছেন জয়শঙ্কর-ব্লিঙ্কেন
এস জয়শঙ্কর ও অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন । সংগৃহীত

কানাডার সঙ্গে সম্পর্কে উত্তেজনার মধ্যেই বৃহস্পতিবার (২৮ সেপ্টেম্বর) মার্কিন পররাষ্ট্র সচিব অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেনের সঙ্গে বৈঠকে বসছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর। বৈঠকে কানাডা প্রসঙ্গ উঠতে পারে বলে ধারণা করছেন সংশ্লিষ্টরা। তবে বৈঠকের আগেই এ বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র ম্যাথু মিলার জানিয়েছেন, খালিস্তান আন্দোলনের নেতা হারদীপ সিং নিজ্জার হত্যায় কানাডায় শুরু হওয়া তদন্ত প্রক্রিয়ায় সহযোগিতা করার জন্য তারা ভারতকে উৎসাহিত করছে। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে আনন্দবাজার পত্রিকা।

এর আগে চতুর্দেশীয় জোট কোয়াডের মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকে ব্লিঙ্কেন ও জয়শঙ্করের মধ্যে বৈঠক হয়েছিল। তবে দ্বিপাক্ষিক বিষয়ে সেখানে তারা কথা বলতে পারেননি। তাই যুক্তরাষ্ট্রে ব্লিঙ্কেনের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে জয়শঙ্কর কানাডা প্রসঙ্গ তুলতে পারেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

জয়শঙ্করের সঙ্গে ব্লিঙ্কেনের বৈঠকে কানাডা প্রসঙ্গ উঠবে কি না, এই প্রশ্নের উত্তরে ম্যাথিউ মিলার বলেন, “আগেই স্পষ্ট করেছি যে কানাডার তদন্তে সহযোগিতা করার জন্য আমরা ভারতকে উৎসাহিত করেছি। আমরা এটি করে যাব।” 

মার্কিন এই বার্তা থেকে ধারণা করা হচ্ছে, বৈঠকে এ বিষয়টি এড়িয়ে যাওয়া হবে। 

কানাডার অভিযোগের পর থেকে ভারত অটোয়ার প্রতি ক্রমাগত কড়া বার্তা দিচ্ছে। জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনের বক্তব্যে কানাডার নাম উচ্চারণ না করেই দেশটির তীব্র সমালোচনা করে ভারত। পরে ‘কাউন্সিল অব ফরেন রিলেশনস’-এ দেওয়া বক্তব্যে ও প্রশ্নোত্তরে সরাসরিই কানাডাকে আক্রমন করেন জয়শঙ্কর।

জয়শঙ্কর বলেন, “গত কয়েক বছরে কানাডায় পরিকল্পিত অপরাধের সংখ্যা ব্যাপকভাবে বেড়েছে। বিচ্ছিন্নতাবাদ, উগ্রপন্থার কারণেই এই অপরাধ ও হিংসা। আমরা তাদের কানাডা থেকে পরিচালিত সংগঠিত অপরাধ নেতৃত্ব সম্পর্কে অনেক তথ্য দিয়েছি। জঙ্গি নেতাদের চিহ্নিত করে প্রত্যর্পণ করতেও বারবার অনুরোধ জানানো হয়েছে।” 

শিখ নেতা হারদীপ সিং নিজ্জার হত্যা প্রসঙ্গে জয়শঙ্কর বলেন, “আমরা কানাডা সরকারকে স্পষ্টভাবে জানিয়েছি যে, এটা ভারত সরকারের নীতি নয়।” তবে প্রাসঙ্গিক তথ্য দেওয়া হলে ভারত তা তদন্ত করে দেখতে রাজি বলেও জানান তিনি।

Link copied!