সোমালিয়ায় সরকারি ভবনে জঙ্গি হামলায় নিহত ১১


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: জানুয়ারি ২৩, ২০২৩, ০২:২৮ পিএম
সোমালিয়ায় সরকারি ভবনে জঙ্গি হামলায় নিহত ১১

সোমালিয়ার রাজধানী মোগাদিসুর একটি সরকারি ভবনে জঙ্গি হামলায় অন্তত পাঁচজন নিহত হয়েছেন।

দেশটির তথ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, রোববার স্থানীয় সময় দুপুরের দিকে জঙ্গিরা একটি বোমা বিস্ফোরণ ঘটানোর পর ভবনটিতে হামলা চালায়।

মন্ত্রণালয়টি ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, জঙ্গিগোষ্ঠী আল শাবাবের হামলাকারীরা মোগাদিসুর মেয়রের দপ্তরের কাছাকাছি হামলা চালানোর পর নিরাপত্তা বাহিনীর প্রতিরোধের মুখে পড়ে। এরপর নিরাপত্তা বাহিনী জঙ্গিদের ছয়জনকে হত্যা করে সন্ধ্যা ছয়টার মধ্যে এলাকাটি মুক্ত করে।

মোগাদিসুর মেয়র দপ্তরে কর্মরত ফারাহ আব্দুল্লাহি বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেছেন, “আমরা অফিসেই ছিলাম, প্রচণ্ড বিস্ফোরণের শব্দে আমাদের কানে তালা লেগে যায়। আমরা দৌড়ে বের হয়ে আসি, আর তখনই গুলিবর্ষণ শুরু হয়।”

মৃতের সংখ্যা আরও বেশি বলে জানিয়েছেন আমিন অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিসের পরিচালক আব্দিকাদির আব্দিরহমান। তিনি জানান, আট বেসামরিকের মৃতদেহ বহন করে নিয়ে গেছেন তারা।

এ ঘটনায় আরও অন্তত ১৬ জন আহত হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

সোমালিয়ার প্রেসিডেন্ট হাসান শেখ মোহামুদের সরকার আগস্টে আল শাবাবের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করার পর থেকে পাল্টা হামলা বৃদ্ধি করেছে আল কায়েদার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট গোষ্ঠীটি।

মোগাদিসুর অত্যন্ত সুরক্ষিত একটি এলাকায় স্থানীয় সরকারের সদর দপ্তর ভবনে মেয়রের দপ্তরটির অবস্থিত। ওই এলাকার সড়কগুলোতে কংক্রিটের স্ল্যাব ও বিভিন্ন রোড ব্লক বসানো আছে। ভবনটি সোমালিয়ার প্রেসিডেন্ট দপ্তর ‘ভিলা সোমালিয়া’ থেকে প্রায় দেড় কিলোমিটার দূরে।

এক বিবৃতিতে আল শাবাব বলেছে, “আমাদের আত্মঘাতী বোমারুরা আঘাত হানার পর পদাতিক যোদ্ধারা ভবনটিতে প্রবেশ করে রক্ষীদের হত্যা করেছে।”

২০০৬ সাল থেকে সোমালিয়ায় তাদের নিজেদের ধরনের ইসলামিক শরিয়া আইন প্রবর্তনের জন্য সরকারের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে আসছে আল শাবাব। তারা প্রায়ই দেশটির বিভিন্ন স্থানে বোমা ও বন্দুক হামলা চালায়। 

Link copied!