• ঢাকা
  • শনিবার, ১৩ জুলাই, ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১, ৬ মুহররম ১৪৪৫

গুলজারকে অন্তর্বর্তীকালীন প্রধানমন্ত্রী চান ইমরান খান


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: এপ্রিল ৪, ২০২২, ০৭:২৫ পিএম
গুলজারকে অন্তর্বর্তীকালীন প্রধানমন্ত্রী চান ইমরান খান
ছবি : দ্য ট্রিবিউন এক্সপ্রেস

নানা নাটকীয়তার পর ভেঙে দেওয়া হয়েছে পাকিস্তানের সংসদ। ফলে তত্ত্বাবধায়ক সরকার দায়িত্ব নিয়ে পরবর্তী নির্বাচন করবে। আর তত্ত্বাবধায়ক সরকার গঠনের জন্য প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দেশের সাবেক প্রধান বিচারপতি গুলজার আহমেদের নাম প্রস্তাব করেছেন বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

পাকিস্তানের তথ্যমন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরীর বরাতে সোমবার (৪ এপ্রিল) এ খবর জানিয়েছে দ্য ট্রিবিউন এক্সপ্রেস।

দেশের তথ্যমন্ত্রী ও ইমরান খানের দল তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) নেতা ফাওয়াদ বলেন, “দলের সিদ্ধান্তের পর তত্ত্বাবধায়ক প্রধানমন্ত্রীর নাম চূড়ান্ত করা হয়েছে। এ বিষয়ে প্রেসিডেন্টকে চিঠি পাঠানো হয়েছে।”

সংবিধানের ২২৪ নম্বর অনুচ্ছেদের ‘এ’ ধারার ৪ উপধারা অনুযায়ী পাকিস্তানে এখন তত্ত্বাবধায়ক প্রধানমন্ত্রী নিয়োগ করা হবে। এর পরই ক্ষমতা থেকে বিদায় নেবেন ইমরান। এ জন্য ইমরান খান ও বিরোধীদলীয় নেতা শাহবাজ শরিফকে চিঠি পাঠিয়েছিলে রাষ্ট্রপতি আরিফ আলভি। এতে অন্তর্বর্তীকালীন সরকারের প্রধানমন্ত্রীর জন্য নাম জমা দিতে বলেন তিনি।

প্রেসিডেন্ট কার্যালয়ের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, তত্ত্বাবধায়ক প্রধানমন্ত্রী ও মুখ্যমন্ত্রী নিয়োগ না হওয়া পর্যন্ত পদে থাকা দুজনই দায়িত্ব পালন করতে থাকবেন। নামে প্রধানমন্ত্রী থাকলেও ইমরান খান নির্বাচিত সরকারের প্রধানের মতো ক্ষমতা প্রয়োগ করতে পারবেন না।

অবশ্য পার্লামেন্ট ভেঙে দেওয়ার ব্যাপারটি নিয়ে এখনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আসেনি আদালতে। প্রেসিডেন্ট ও প্রধানমন্ত্রী পার্লামেন্ট ভেঙে দেওয়ার পর দেশটির প্রধান বিচারপতি উমর আতা বানদিয়াল বলেছেন, বিষয়টি দেশের শীর্ষ আদালতের আদেশের অধীন। এ বিষয়ে আদালতই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানাবে।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব খারিজ করে দেন পাকিস্তানের জাতীয় পরিষদের ডেপুটি স্পিকার কাসিম সুরি।

সংবিধানের অনুচ্ছেদ ৫ এর উল্লেখ করে ডেপুটি স্পিকার কাসিম সুরি জানান, রাষ্ট্রের আনুগত্য করা প্রত্যেক নাগরিকের মৌলিক দায়িত্ব। সংবিধান ও আইনের প্রতি আনুগত্য নাগরিকদের জন্য বাধ্যতামূলক এবং পাকিস্তানে অবস্থান করা প্রত্যেকের জন্যই তা প্রযোজ্য। এরপর স্পিকার অনাস্থা প্রস্তাব নাকচ করে দিলে জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

অনাস্থা প্রস্তাব খারিজ হওয়ার জন্য জাতিকে অভিনন্দন জানিয়েছেন ইমরান। তিনি বলেন, এই সিদ্ধান্তের মাধ্যমে ডেপুটি স্পিকার “সরকার পতনের চেষ্টা ও বিদেশি ষড়যন্ত্রকে প্রতিহত করেছেন।”

Link copied!