• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই, ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১, ১১ মুহররম ১৪৪৫

অনন্ত বিজয় হত্যা মামলার রায় দ্রুত কার্যকরের দাবি


সিলেট প্রতিনিধি
প্রকাশিত: মার্চ ৩০, ২০২২, ০৯:৩১ পিএম
অনন্ত বিজয় হত্যা মামলার রায় দ্রুত কার্যকরের দাবি

বিজ্ঞান লেখক অনন্ত বিজয় দাশ হত্যা মামলায় চারজনের ফাঁসির রায়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করে তা দ্রুত কার্যকরের দাবি জানিয়েছেন সিলেটের প্রগতিশীল রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক নাগরিক সমাজ।

বুধবার (৩০ মার্চ) বিকেলে নগরের সুবিদবাজারস্থ অনন্ত বিজয় দাশের হত্যাকাণ্ডের স্থানে নির্মিত স্মৃতিস্তম্ভে অনুষ্ঠিত সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তারা এ দাবি জানান।

গণজাগরণ মঞ্চ, সিলেটের মুখপাত্র দেবাশীষ দেবুর পরিচালনায় এ সময় বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও অনন্ত বিজয় দাশ হত্যা মামলায় বাদীপক্ষের অন্যতম আইনজীবী অ্যাডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. নাজিয়া চৌধুরী, অনন্ত বিজয়ের ভগ্নিপতি অ্যাডভোকেট সমর বিজয় সী শেখর, সাংবাদিক মুক্তাদির আহমদ মুক্তা, সাংবাদিক উজ্জ্বল মেহেদী, মহানগর আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক গোলাম সোবহান চৌধুরী দীপন, বাসদ নেতা প্রণব জ্যোতি পাল, গণজাগরণ মঞ্চের সংগঠক রাজীব রাসেল, বাংলাদেশ যুব ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় সদস্য মতিউর রহমান, ছাত্র ইউনিয়ন সিলেট জেলার সাধারণ সম্পাদক নাহিদ হাসান প্রান্তিক প্রমুখ।

এর আগে অনন্ত বিজয় দাসের স্মৃতিস্তম্ভে প্রয়াত যুবনেতা মইনুদ্দিন আহমদ জালালের পক্ষ থেকে ফুল দেওয়া হয়। পরে ছাত্র ইউনিয়ন সিলেট জেলা ও যুব ইউনিয়নের পক্ষে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করা হয়।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, ৬ বছরের বেশি সময় পর আমাদের সহযোদ্ধা অনন্ত বিজয় দাশের হত্যা মামলার রায় ঘোষণা হয়েছে আজ। রায়ে আমরা কিছুটা স্বস্তি প্রকাশ করছি। তবে মৃতুদণ্ডপ্রাপ্ত চারজনের মধ্যে তিনজন আসামি এখনও গ্রেপ্তার হয়নি, যা আমাদের হতাশ করেছে। অবিলম্বে তাদের গ্রেপ্তার করে দ্রুত রায় কার্যকরের দাবি জানাচ্ছি আমরা।

তারা আরও বলেন, অনন্ত বিজয়কে হত্যার মাধ্যমে তারা মুক্তচিন্তা ও মুক্তবুদ্ধির চর্চাকে রুদ্ধ করার চেষ্টা করেছে। তাই শুধুমাত্র আইনিভাবে তাদের মোকাবেলা নয়, রাজনৈতিক ও সামাজিকভাবে তাদের প্রতিহত করতে হবে। সমাজের প্রতিটি স্তর থেকে উগ্র সাম্প্রদায়িকতাকে হটাতে হবে। তাহলেই অনন্ত বিজয়দের অসম্পূর্ণ স্বপ্ন, একটি অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ে তোলা সম্ভব।

Link copied!