• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন, ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

জাপানের কাছে ৮-০ গোলে হেরেছে বাংলাদেশ


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২২, ২০২৩, ০৮:৩৮ পিএম
জাপানের কাছে ৮-০ গোলে হেরেছে বাংলাদেশ
জাপানের কাছে বড় ব্যবধানে হেরেছে বাংলাদেশের মেয়েরা। ছবি : সংগৃহীত

এশিয়ান গেমসে জাপোনের কাছে বিধস্ত হয়েছে বাংলাদেশের মেয়েরা। আগেই জানাছিল ২০১১ বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়নের বিপক্ষে পারাটা কঠিন হবে সাবিনা খাতুনদের। ম্যাচ শেষে হল সেটাই। হারতে হয়েছে ৮-০ গোলের বিশাল ব্যবধানে।

চীনের ওয়েংজু স্পোর্টস সেন্টারে ম্যাচের শুরু থেকে ছিল জাপানের আধিপত্য। আক্রমণের সুর গেঁথে একের পর এক গোল আদায় করে নিয়েছে তারা। ষষ্ঠ মিনিটে বক্সের ওপর থেকে চিবা রেমিনার ডানপায়ের জোড়ালো শট রূপনা চাকমাকে সুযোগ না দিয়ে জালে জড়ায়। দুই মিনিটর পর পেনাল্টি থেকে ব্যবধান বাড়ান মোমোকো তানিকাওয়া। বক্সে চিবাকে ফেলে দিয়ে পেনাল্টি উপহার দিয়েছিলেন মনিকা চাকমা। ২৯ মিনিটে চিবা নিজের দ্বিতীয় ও দলের হয়ে তৃতীয় গোল করেন।

প্রথমার্ধের শেষ মিনিটে চতুর্থ গোল হজম করে বাংলাদেশ। ইয়োশিনো নাকাসিমার শট বক্সে মাসুরা পারভীনের হাতে লাগলে পেনাল্টি পায় জাপান। ইউজুহো শিওকোসির পেনাল্টি রূপনার গ্লাভস আর সাইড পোস্টে লেগে ফিরলেও ফিরতি বল জালে জড়ান নিজেই।

বিরতি থেকে ফিরে মায়া হিজিকাতা ৪৯ মিনিটে ৫-০ করেন। ৫৮ মিনিটে কতনো সাকাকিবারা যোগ দেন গোলের মিছিলে। ৮০ মিনিটে তানিকাওয়ার সৌজন্যে সপ্তম গোল পায় জাপান। ৮৫ মিনিটে সাকিবারা আরও একটি গোল করলে স্কোর দাঁড়ায় ৮-০ তে।

এদিকে ম্যাচ হারের পর দলের কোচ সাইফুল বারি টিটু বলেন, “পার্থক্যটা বোঝা গেছে, তারা কোথায় আর আমরা কোথায়। কত সহজে ভুল করা যায় সেটাও দেখা গেল। তাদের হয়ে বিশ্বকাপের অনেকেই খেলেনি। এরপরও সর্বোচ্চ প্রস্তুতি নিয়ে এসেছে তারা। তবুও আমাদের সঙ্গে তাদের পার্থক্য অনেক। “

বড় ব্যবধানে হারের পরও মেয়েদের প্রশংসাই করলেন কোচ টিটু। কোচ বলেন, “মেয়েরা সাধ্যমতো চেষ্টা করেছে। এমন খেলা কখনোই তারা খেলেনি। বিগেস্ট চ্যালেঞ্জ ছিল। এই ম্যাচ থেকে কি পেলাম তা নিয়ে ভিয়েতনামের বিপক্ষে লড়তে হবে। পুরো ম্যাচই একদিকে পজিটিভ, কারণ এখানে ভুল-ত্রুটি আমাদের আরও শোধরানোর ব্যবস্থা করবে।”

বাংলাদেশ দল ২৫ সেপ্টেম্বর পরের ম্যাচ খেলবে ভিয়েতনামের বিপক্ষে।

Link copied!