• ঢাকা
  • বুধবার, ২৪ জুলাই, ২০২৪, ৯ শ্রাবণ ১৪৩১, ১৮ মুহররম ১৪৪৫

বাংলাদেশের ব্যাটারদের ব্যর্থতার দিনে তাইজুলের মাইলফলক


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: এপ্রিল ১০, ২০২২, ০১:০৯ এএম
বাংলাদেশের ব্যাটারদের ব্যর্থতার দিনে তাইজুলের মাইলফলক
ছবি- সংগৃহীত

প্রথম ইনিংসে দক্ষিণ আফ্রিকার করা ৪৫৩ রানের জবাবে বাংলাদেশ তৃতীয় সেশনে ব্যাট করতে নেমে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়ে দারুণ বিপর্যয়ে পড়েছে। পোর্ট এলিজাবেথ টেস্টের দ্বিতীয় দিন শেষে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৩৯ রান তুলেছে। ব্যাট হাতে ৫৫ বলে ৩০ রান নিয়ে আশার প্রদীপ হয়ে অপরাজিত আছেন অভিজ্ঞ মুশফিকুর রহিম। তার সঙ্গী ইয়াসির আলী রাব্বি ৮ রান নিয়ে ব্যাট করছেন।

তার আগে টাইগার স্পিনার তাইজুল ইসলাম ক্যারিয়ারের ১০ম পাঁচ উইকেট তুলে নেবার পর আরও এক উইকেট তুলে নিয়ে ক্যারিয়ারের ১৫০তম উইকেটের মাইলফলক স্পর্শ করেন৷ তার আগে একমাত্র বাংলাদেশি হিসেবে সাকিব আল হাসানই এই কৃতিত্ব অর্জন করেন। সাকিবের উইকেট সংখ্যা বর্তমানে ২১৫টি। আরেক স্পিনার মেহেদি হাসান মিরাজ ১২৬ উইকেট নিয়ে মাইলফলকের পিছনে ছুটছেন। 

শনিবার (৯ এপ্রিল) পোর্ট এলিজাবেথের সেন্ট জর্জ পার্কে ৫ উইকেটে ২৭৮ রানে দ্বিতীয় দিন শুরুর সপ্তম ওভারেই বাংলাদেশি পেসার খালেদ আহমেদ  প্রোটিয়া উইকেটকিপার ব্যাটার কাইল ভেরাইনিকে ব্যক্তিগত ২২ রানে ফেরান। এই পেসারের বল ক্লিন বোল্ড হলে বাংলাদেশ দিনের প্রথম সফলতা পায়।

এরপর ডারবান টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে বল হাতে ৭ উইকেট নিয়ে বাংলাদেশকে একাই ধসিয়ে দেয়া দক্ষিণ আফ্রিকার বাঁহাতি স্পিনার কেশভ মহারাজ ব্যাট হাতে টাইগার বোলারদের তুলোধুনো করে দেন। মাত্র ৫০ বলেই ৪টি চার ও ৩টি বিশাল ছয়ের মারে নিজের টেস্ট ক্যারিয়ারের চতুর্থ ফিফটি তুলে শতকের দিকে এগিয়ে যাচ্ছিলেন। অপর পাশে থিতু হয়ে থাকা ব্যাটার উইয়ান মাল্ডারকে ফিরিয়ে খানিক স্বস্তি এনেছেন তাইজুল ইসলাম। তাইজুলের দারুণ এক ডেলিভারিতে সোজা বোল্ড হয়ে যান ৭৭ বলে ৩ চার ও ১ ছয়ের মারে ৩৩ রান করা এই ডানহাতি ব্যাটার। 

৭ উইকেটে ৩৮৪ রানে লাঞ্চ বিরতি যাওয়া স্বাগতিকদের বিরতির পর মহারাজকে সাজঘরে ফিরিয়েছেন তাইজুল। ফলে টেস্ট ক্রিকেটে নিজের দশম পাঁচ উইকেট তুলে নিয়েছেন ৩০ বছর বয়সী এই স্পিনার। দলীয় ৪১৮ রানে ব্যক্তিগত ৮৪ রানে তাইজুলের ঘুর্ণি জাদুতে সাজঘরের পথ ধরেন কেশব।

পরে কলপ্যাক চুক্তি থেকে ফেরা সাইমন হার্মারকেও স্ট্যাম্পিংয়ের ফাঁদে ফেলেন এই বোলার। ৫৯ বলের ইনিংসে সেও ২৯ রান যোগ করেন। আর শেষে লিজাড উইলিয়ামসকে মেহেদী হাসান মিরাজ এলবিডব্লিউ করার সঙ্গে সঙ্গে প্রোটিয়াদের প্রথম ইনিংস থামে ৪৫৩ রানে। 

এরপর বাংলাদেশ ব্যাটিংয়ে নেমে প্রথম ওভারেই উইকেট হারিয়ে বসে। দলীয় ৩ রানে ডারবান টেস্টের প্রথম ইনিংসে নিজের ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি হাঁকানো মাহমুদুল হাসান জয় শূন্য রানে আউট হন। এই নিয়ে টানা দুই ইনিংসে ডাক মারলেন এই তরুণ। এরপর ড্যাশিং ওপেনার তামিম ও তরুণ ব্যাটার নাজমুল ইসলাম শান্ত দলকে বিপর্যয় মুক্ত করেন। এই জুটি ২০ ওভার ব্যাটিং করে গুরুত্বপূর্ণ ৭৯ রানের জুটি গড়েন। কিন্তু প্রায় এক বছর বিরতির পর টেস্ট আঙ্গিনায় বাংলাদেশের সেরা ওপেনার হাফ সেঞ্চুরি থেকে ৩ রান দূরে থাকতেই এলবিডব্লুর ফাঁদে পড়েন। তাকে ফেরান স্বাগতিক পেসার মাল্ডার। 

প্রোটিয়া এই বোলার পরে দ্রুত শান্ত (৩৩) ও অধিনায়ক মুমিনুল হকের উইকেট তুলে নিয়ে বাংলাদেশের ইনিংসে ঝড় তুলেন। টাইগার অধিনায়ক ডারবান টেস্টের মতো এবারও রান করতে ব্যর্থ হন। 

যে লিটন দাসকে আশার আলো ভাবা হচ্ছিল, তাকেও ফিরিয়ে দেন অলিভিয়ার। দলীয় ১২২ রানের মাথায় মাত্র ১১ রানে বিদায় হন লিটন। ফলে শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশ দলের ভরসা হয়ে দিনের পরিসমাপ্তিতে অভিজ্ঞ মুশফিকুর রহিম ক্রিজে দাঁড়িয়ে রয়েছেন। তার সঙ্গে আরেক ব্যাটার ইয়াসির আলী ৮ রানে তৃতীয় দিনের সূচনা করবেন। অপরদিকে ব্যাট হাতে ৫৫ বলে ৩০ রান নিয়ে অভিজ্ঞ মুশফিকুর রহিম সঙ্গ দিচ্ছেন। 

দ্বিতীয় দিন শেষে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৩৯ রান তুলেছে। প্রোটিয়া দলের দুই পেসার মাল্ডার ৩ টি ও অলিভিয়ার নেন ২ উইকেট। 

Link copied!