• ঢাকা
  • শুক্রবার, ১৯ জুলাই, ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১, ১২ মুহররম ১৪৪৫

দ্বিতীয় দিনের শুরুতে খালেদের প্রথম শিকার 


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: এপ্রিল ৯, ২০২২, ০৩:০৬ পিএম
দ্বিতীয় দিনের শুরুতে খালেদের প্রথম শিকার 
ছবি সংগৃহীত

টাইগার পেসার খালেদ আহমেদ ও বাঁহাতি স্পিনার তাইজুল ইসলামের কল্যাণে প্রথম দিন দক্ষিণ আফ্রিকার ৫ উইকেট তুলে নিয়েছিল মুমিনুল হকের নেতৃত্বাধীন টিম বাংলাদেশ। এরপর ২৭৮ রানে দিন শেষ করেছিল স্বাগতিকরা। দ্বিতীয় দিনের শুরু থেকেই উইকেটের জন্য মরিয়া বাংলাদেশকে প্রথম শিকার এনে দেন পেসার খালেদই।  

প্রোটিয়া উইকেটকিপার কাইল ভেরাইনার সঙ্গে ওয়ায়ান মুল্ডার দলের সংগ্রহ এগিয়েই নিয়ে যাচ্ছিলেন। যার কারণে পেসার খালেদের সঙ্গে ভেরাইনার জমে উঠেছিল কথার লড়াইও। ইনিংসের ৯৭তম ওভারে এই উইকেটকিপার ব্যাটারকে সাজঘরে ফেরান খালেদ। ব্যক্তিগত ২২ রানে এই পেসারের বলে সোজা বোল্ড হলে বাংলাদেশ দ্বিতীয় দিনে প্রথম সফলতা পায়।

এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত দ্বিতীয় দিন প্রথম সেশনে ব্যাট করছে স্বাগতিকরা। ১০২ ওভারে দক্ষিণ আফ্রিকার সংগ্রহ ৬ উইকেটে ৩৩৩রান। লোয়ার অর্ডারে প্রোটিয়া পেস অলরাউন্ডার ওয়ায়ান মুল্ডার ১৬ ও স্পিনার কেশব মহারাজ ২৬ রানে অপরাজিত রয়েছেন।

বাংলাদেশের পক্ষে খালেদ আহমেদ ও স্পিনার তাইজুল ইসলাম নেন ৩টি করে উইকেট। 

শনিবার (৯ এপ্রিল) সেন্ট জর্জেস পার্কে দ্বিতীয় দিনের শুরুটা সতর্ক-সাবধানে করেছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। তবে খারাপ বলে বাউন্ডারি মেরে স্কোরবোর্ডে রানের চাকা সচল রাখছিলেন কাইল ভেরাইন-ওয়ায়ান মুল্ডার জুটি। দিনের পঞ্চম ওভারে খালেদের চতুর্থ বলে স্ট্রেইট ড্রাইভ মেরেছিলেন ভেরেন। কিন্তু সেটি ধরে সোজা থ্রো করে বসেন এই পেসার। যা গিয়ে লাগে ভেরেনের গ্লাভসে। নিজের ভুল বুঝতে পেরে সঙ্গে সঙ্গে দুঃখপ্রকাশের ভঙ্গি করেন খালেদ। 

কিন্তু তা মানতে রাজি ছিলেন না ভেরেন। তিনি বরং নিজের জায়গায় দাঁড়িয়ে আড়চোখে দেখতে থাকেন খালেদকে। তখন ভেরেন ও খালেদের মধ্যে বাদানুবাদের উপক্রম হলে ইয়াসির আলি রাব্বি এসে সরিয়ে নেন দুজনকে। আম্পায়ার মারাইস এরাসমাস তখন বাংলাদেশ অধিনায়ক মুমিনুল হককে বুঝিয়ে দেন তার দলের খেলোয়াড়দের আরও সতর্ক রাখার ব্যাপারে।

এক ওভার পর খালেদের করা অফস্ট্যাম্পের বাইরের ডেলিভারিতে চার মেরে দলীয় ৩০০ পূরণ করেন ভেরেন। তবে এক বল পরই দারুণ এক ভেতরে ঢোকা ডেলিভারিতে ভেরেনকে বোকা বানিয়ে স্ট্যাম্প ছত্রখান করে দেন খালেদ। সাজঘরে ফেরার আগে ২২ রান করেছেন ভেরেন।

এর আগে প্রথম দিন সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্টে স্বাগতিকরা ব্যাটিংয়ে নেমে শুরু থেকেই বাংলাদেশের বোলারদের ওপর চড়াও হয়ে ইনিংসের শুরু করে বড় সংগ্রহের আভাস দিয়েছিলন। কিন্তু টাইগার পেসার খালেদ আহমেদ ও বাঁহাতি স্পিনার তাইজুল ইসলামের কল্যাণে দিন শেষে ২৭৮ রানের মধ্যেই ৫ উইকেট হারিয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকা।

 

Link copied!