• ঢাকা
  • শনিবার, ১৫ জুন, ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১, ৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

যুক্তরাষ্ট্রে ‘ঘূর্ণিঝড় হেনরি’র আঘাত


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: আগস্ট ২৩, ২০২১, ১০:৪৪ এএম
যুক্তরাষ্ট্রে ‘ঘূর্ণিঝড় হেনরি’র আঘাত

যুক্তরাষ্ট্রের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের রোড আইল্যান্ডে ঘূর্ণিঝড় হেনরি আঘাত হেনেছে। যার গতিবেগ প্রতিঘণ্টায় ৯৫ কিলোমিটার। 

বিবিসি জানায়, স্থানীয় সময় রোববার (২২ আগস্ট) দুপুরের পর রোড আইল্যান্ড উপকূলে আছড়ে পড়ে এ ঘূর্ণিঝড়। হারিকেনের প্রভাবে নিউজার্সি থেকে শুরু করে ম্যাসাচুসেটস অঙ্গরাজ্যে ভারি বৃষ্টি অব্যাহত রয়েছে। এ রাজ্যে ২২ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

ঘূর্ণিঝড়টি ব্যাপক তাণ্ডব চালিয়েছে। কিছু এলাকা প্লাবিত হয়েছে। এক লাখ ২০ হাজারের অধিক মানুষের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। অনেক মানুষ তাদের গাড়িতে আটকা পড়েছে। ব্রিজ ও রাস্তাঘাটও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তাদের উদ্ধারে হেলিকপ্টার নিয়ে কাজ শুরু করেছে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ।

নিউইয়র্কের গভর্নর অ্যান্ড্রু কুমো লং আইল্যান্ড ও নিউইয়র্ক সিটিতে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছেন।

গভর্নর অ্যান্ড্রু কুমো লং আইলান্ড, কানিকটিকাট, মেইন, ম্যাসাচুসেটস, নিউ হ্যাম্পশায়ারসহ পুরো নিউ ইংল্যান্ড এলাকার লোকজনকে সতর্ক থাকতে বলেছেনর। রাজ্যের অন্যান্য অংশের বাসিন্দাদেরও সাবধান থাকার অনুরোধ জানান।

ম্যাসাচুসেটসের গভর্নর কার্যালয়ের কর্মকর্তারা জানান, জরুরি অবস্থায় রাজ্যেটির সব পার্ক ও সমুদ্র সৈকত বন্ধ থাকবে। প্রায় তিন লাখ বাসিন্দা বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন অবস্থায় পড়তে পারেন। ঘূর্ণিঝড়ের জন্য সবাইকে প্রস্তুতি নিতে বলা হয়। স্থানীয় আবহাওয়ার প্রতিও লক্ষ্য রাখা হচ্ছে।

যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল হারিকেন সেন্টারের তথ্য অনুযায়ী, হেনরি প্রতি ঘণ্টায় ৭০ মাইল (প্রায় ১১৩ কিমি/ঘন্টা) দমকা হাওয়ার সঙ্গে দেশটিতে অগ্রসর হয়। এখন পর্যন্ত বাতাস বা বন্যা বিপর্যয়ের কয়েকটি খবর পাওয়া গেছে। রোড আইল্যান্ডের বেশ কয়েকটি সেতু সাময়িকভাবে বন্ধ হয়ে যায় এবং কিছু উপকূলীয় রাস্তায় চলাচল প্রায় দুর্গম হয়ে যায়।  ঘূর্ণিঝড়ের কারণে ৭৪ হাজারের বেশি বাসিন্দা বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। এরই মধ্যে কানেকটিকাটে বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়েছে ২০ হাজারের বেশি লোক। নিউইয়র্ক ও নিউ ইংল্যান্ডে বন্যার আশঙ্কায় সরিয়ে নেওয়া হয়েছে উপকূলের বাসিন্দাদের।

স্থানীয় টেলিভিশনের ফুটেজে দেখা গেছে, শহরের কেন্দ্রস্থলের রাস্তাগুলো প্লাবিত হয়েছে এবং গাড়িগুলি প্রায় পুরোপুরি ডুবে গেছে।

এদিকে টেনেসি অঙ্গরাজ্যে আকস্মিক বন্যায় তলিয়ে গেছে বহু ঘরবাড়ি। ধ্বংসস্তূপের ভেতর আটকেপড়া গাড়িতে হঠাৎ আগুন ধরে গেলে ক্ষয়ক্ষতি হয়। আকস্মিক বন্যায় ২২ জনের প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে। এখনও নিখোঁজ রয়েছেন আরও অনেকে।

Link copied!