• ঢাকা
  • বুধবার, ২৯ মে, ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২০ জ্বিলকদ ১৪৪৫

বর্ষবরণ ভোজের পর আরাম দেবে এই ৩ পানীয়


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: এপ্রিল ১৪, ২০২৪, ০১:৩৩ এএম
বর্ষবরণ ভোজের পর আরাম দেবে এই ৩ পানীয়
ছবি: সংগৃহীত

বাংলার নতুন বছর শুরু হচ্ছে। বর্ষবরণে মেতে উঠবে বাঙালি। উত্সব উদযাপনে নানা আয়োজন ইতোমধ্যেই শেষ। সঙ্গে থাকছে বাঙালি খানাপিনার আয়োজনও। প্রায় প্রত্যেকটি ঘরে ঘরেই বাঙালিয়ানা খাবারের আয়োজন হবে। আবার রেস্তোরাঁয়ও রয়েছে নানা খাবারের আয়োজন। সারাদিনই পেটভরে চলবে খানাপিনা। ঈদের আমেজ না কাটতেই বর্ষ বরণের আনন্দ। তাই খানাপিনার আয়োজন একটু বেশিই হবে। ভোজনরসিক বাঙালি খানাপিনা তো করবেই, কিন্তু অতিরিক্ত খাওয়ার পর অস্বস্তিবোধও বাড়তে পারে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, আবহাওয়ায় প্রচণ্ড তাপপ্রবাহ থাকবে। তাই বৈশাখের ভোজন যতটা হালকা হবে ততই ভালো।

তবুও ভোজনরসিক বাঙালির খাবারের প্রতি প্রেম তো রয়েছেই। তাই উত্সবে অতিরিক্ত খাবার খেলেও তা যেন অস্বস্তির কারণ না হয় এর জন্য় কিছু ঘরোয়া টোটকা জেনে রাখুন। ৩টি পানীয় পান করলেই অস্বস্তিবোধ কমবে বলে জানাচ্ছেন স্বাস্থ্যবিদরা। সেই সঙ্গে গ্যাস-অম্বল ও পেট ফাঁপার সমস্যা থেকে রেহাই পাওয়া যাবে। তাই নববর্ষের খানাপিনা থেকে পেটের যেকোনো  সমস্যার থেকে মুক্তি পেতে কিছু পানীয় পান করতে পারেন।

রসুন পেটের সমস্যা  সমাধানে দারুণ কার্যকর। রসুনের সঙ্গে লবঙ্গ, জিরা ও গোলমরিচ একটু থেঁতো করে নিন। এবার এগুলো গরম পানিতে ৫ মিনিট ফুটিয়ে নিন। ফুটে এলে ছেঁকে পানিটুকু খেয়ে নিন। পেটের গ্যাসের সমস্যা দূর হয়ে যাবে।

গরম পানিতে আধা চা চামচ আদা গুঁড়ো, আধা চা চামচ এলাচ গুঁড়ো, আধা চা চামচ মৌরি গুঁড়ো এবং সামান্য হিং মিশিয়ে নিন। দিনে দুই বার খেতে পারেন। গ্যাসের সমস্যা কমে যাবে।

দই পেটের জন্য উপকারী। পুদিনা পাতা দিয়ে দইয়ের ঘোল বানিয়ে নিতে পারেন। এটি সারাবছরই খেতে পারেন। পেটে গ্যাসের সমস্যা দ্রুত সেরে যাবে।

Link copied!