• ঢাকা
  • রবিবার, ১৪ এপ্রিল, ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১, ৪ শাওয়াল ১৪৪৫

স্কুলছাত্রীকে অপহরণের পর ধর্ষণ, আসামির ৬০ বছর কারাদণ্ড


নাটোর প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২৪, ০৩:৫৩ পিএম
স্কুলছাত্রীকে অপহরণের পর ধর্ষণ, আসামির ৬০ বছর কারাদণ্ড
রায় ঘোষণার পর আসামি হাফিজুল ইসলামকে নিয়ে যায় পুলিশ। ছবি : সংগৃহীত

নাটোরে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ ও অপহরণের দায়ে হাফিজুল ইসলাম (৪০) নামের এক আসামিকে ৬০ বছর কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাকে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

রোববার (২৫ ফেব্রুয়ারি) বেলা ১১টার দিকে নাটোরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক (দায়রা জজ) মুহাম্মদ আবদুর রহিম এ রায় দেন। জরিমানার টাকা ভুক্তভোগীকে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

দণ্ডপ্রাপ্ত হাফিজুল নাটোরের নলডাঙ্গা উপজেলার বাসিন্দা। রায় ঘোষণার সময় তিনি আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০১৯ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর রাত সাড়ে ৮টায় নলডাঙ্গা উপজেলার সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্রী (১৩) বাড়ির পাশে গেলে তাকে অপহরণ করে নিয়ে যান এবং পরে ধর্ষণ করেন হাফিজুল ইসলাম। এ ঘটনায় ভুক্তভোগীর বাবা বাদী হয়ে নলডাঙ্গা থানায় অপহরণ ও ধর্ষণের অভিযোগে মামলা করেন।

মামলার তদন্ত শেষে নলডাঙ্গা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) নজমুল হক গত বছরের ৭ ডিসেম্বর আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন। পরে মামলাটি নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুন্যালে এলে সাক্ষ্য গ্রহণ করা হয়। সাক্ষ্যপ্রমাণ ও শুনানি শেষে আদালত এই রায় দেন।

ট্রাইব্যুনালের কৌঁসুলি আনিছুর রহমান বলেন, স্কুলছাত্রীকে অপহরণের দায়ে ৩০ বছর এবং ধর্ষণের দায়ে আরও ৩০ বছর—মোট ৬০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে আসামিকে ২০ হাজার টাকা করে মোট ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। সেই টাকা ভুক্তভোগীকে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

স্বদেশ বিভাগের আরো খবর

Link copied!