• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল, ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১, ৮ শাওয়াল ১৪৪৫

রাহুলের পর ইশানকে ফেরালেন মিরাজ


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১৫, ২০২৩, ০৯:৩৮ পিএম
রাহুলের পর ইশানকে ফেরালেন মিরাজ
উইকেট পাবার পর উচ্ছ্বসিত মিরাজ।

এশিয়া কাপে ভারত ২ উইকেট হারানোর পর ঘুরে দাঁড়িয়েছিল শুভমান গিল ও লোকেশ রাহুলের ব্যাটে। দুজনে মিলে গড়ে তোলেন ৫৭ রানের জুটি। সেই জুটি ভেঙে বাংলাদেশকে ব্রেকথ্রু এনে দেন শেখ মেহেদী। এরপর মেহেদী হাসান মিরাজ এসে তুলে নেন ইশান কিষানের উইকেট। দ্রুত দুই উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে ভারত। এই প্রতিবেদন লেখার আগে, ভারতের সংগ্রহ ২৭ ওভারে ৪ উইকেটে ১১ত রান।

ব্যাট হাতে ছোট্ট ইনিংস খেলা তানজিম হাসান সাকিব, বাংলাদেশের হয়ে বল হাতে শুরুটা করেছেন দারুণ। ওয়াইড দিয়ে বল শুরু করা সাকিব নিজের দ্বিতীয় ডেলিভারিতেই পেয়ে যান উইকেট, সেটিও আবার রোহিত শর্মার। লেংথ বলে শরীর থেকে দূরে ব্যাট নিয়ে খেলতে চেয়েছিলেন রোহিত। কাভারে এনামুল হকের হাতে ক্যাচ গেছে সরাসরি। রোহিত ফেরেন শূণ্য রানে।

এরপর নিজের দ্বিতীয় ওভারে আবারও উইকেট তুলে নেন সাকিব। এবার তার শিকার ভারতীয় অভিষিক্ত ক্রিকেটার তিলক। তিলক বর্মা বলটি বেরিয়ে যাবেন বলে ছেড়ে দিয়েছিলেন। তবে ঢুকেছে সেটি। আঘাত করেছে অফ স্টাম্পের চূড়ায়। অভিষিক্ত তিলক ফেরেন ৫ রানে। এর আগে বয়সভিত্তিক পর্যায়ে দেখা হয়েছিল দুজনের। সর্বশেষ দেখায় তিলককে আউট করেছিলেন তানজিম। আজ দুজনেরই সিনিয়র পর্যায়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক একই ম্যাচে। সেখানেও সফল বাংলাদেশের বোলার।

দ্রুত দুই উইকেট হারিয়ে চাপে পড়া ভারতকে ম্যাচে ফেরান লোকেশ রাহুল ও শুভমান গিলের ব্যাটিং। এই জুটি ৫৭ রান তুলে ফেলেন। বাংলাদেশের জন্য বেশ গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছিল এ জুটি ভাঙা। মেহেদী করলেন সেটিই। রাহুল থেমেছেন ৩৯ বলে ১৯ রানে। মিডউইকেটে ক্যাচ দেন শামীমকে।

এরপর মেহেদী হাসান মিরাজ ফেরান ইশান কিষানকে। মিরাজকে রিভার্স সুইপ খেলতে গিয়ে এলবিডব্লিউর শিকার হন তিনি। ৫ রান করা ইশান যখন ফেরেন ভারতের স্কোর তখন ৯৪ রান। ১০০ রান তোলার আগেই চতুর্থ উইকেট হারিয়ে চাপে ভারত।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে প্রথম ইনিংসে ২৬৫ রান করে বাংলাদেশ। শুরুতে দ্রুত কিছু উইকেট হারিয়ে চাপে পড়লেও টাইগারদের পথ দেখান অধিনায়ক সাকিব আল হাসান এবং তাওহীদ হৃদয়। সাকিব ৮০ রান করে ফিরলে হৃদয় ফেরেন ৫৪ রানে। এরপর বাংলাদেশকে টেনে নিয়ে যান নাসুম আহমেদ। আন্তর্জাতিক সর্বোচ্চ ৪৪ রান করার পথে তাকে সঙ্গ দিয়েছেন শেখ মেহেদী এবং তানজিম সাকিব।

Link copied!