• ঢাকা
  • সোমবার, ২০ মে, ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১,

‘জিনিসপত্রের দাম আরও কমবে, দুঃখ-কষ্ট আর থাকবে না’


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: জুন ১২, ২০২৩, ০৯:৫৭ পিএম
‘জিনিসপত্রের দাম আরও কমবে, দুঃখ-কষ্ট আর থাকবে না’

জিনিসপত্রের দাম আরও কমবে, দুঃখ-কষ্ট আর থাকবে না বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেছেন, “তাপমাত্রা কমার সঙ্গে লোডশেডিং কমে গেছে, আর থাকবে না। সয়াবিন তেলের দামও ১০ টাকা কমে গেছে। জিনিসপত্রের দাম আরও কমতে থাকবে। কারও দুঃখ-কষ্ট আর থাকবে না।”

সোমবার (১২ জুন) রাজধানীর পল্লবীতে যুবলীগ আয়োজিত ঢাকা-১৬ সংসদীয় আসনের ছয়টি ওয়ার্ডের ইউনিটগুলোর ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তত্ত্বাবধায়ক সরকার আর আসবে না, আদালত তাকে কবরে পাঠিয়েছেন উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, “বিএনপি বলেছিল, আওয়ামী লীগ ৩০টা আসনও পাবে না। ২০০৮ সালে তো তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনেই নির্বাচন হয়েছিল। তখন তারা পেয়েছিল ২৯ আসন।”

তিনি বলেন, “যুবলীগ বাংলাদেশের রাজনীতিতে উত্তাল তরঙ্গমালা। যুবলীগ রাজপথের বৈশাখি ঝড়। কয়েকটি ওয়ার্ড সম্মেলনে যুবলীগ যে জাগরণ তৈরি করেছে তাতে আমি আশাবাদী- যত চক্রান্তই হোক না কেন নৌকা আবার বিজয়ী হবে।”

তিনি বলেন, “বিএনপি বলে ভোটের প্রতি নাকি জনগণের আগ্রহ নেই। অথচ বরিশাল ও খুলনার নির্বাচনে ইসি বলছে, ৪৫ থেকে ৫০ শতাংশ ভোটার ভোটকেন্দ্রে উপস্থিত হয়েছেন।”

সেতুমন্ত্রী বলেন, “লোডশেডিং নিয়ে বিএনপি কিছুদিন আগে তুলকালাম করেছে। অথচ তোরা দিলি খাম্বা, আমরা দিলাম বিদ্যুৎ। তাদের আমলে ছিল ৩২০০ মেগাওয়াট। আমরা সেটা নিয়ে এসেছি ২৭ হাজার মেগাওয়াটে।

লোডশেডিংয়ের কারণ দেখিয়ে বিএনপি বলেছে, শেখ হাসিনার গদি নাকি আর নাই। শেখ হাসিনার ওপর আল্লাহর রহমত আছে। যে নেতা সারারাত জনগণের কথা ভাবেন, সেই নেতাকে হটানো এত সহজ নয়।”

তিনি আরও বলেন, “আমরা বাংলাদেশের জনগণের সঙ্গে আছি। আওয়ামী লীগ জনগণের সঙ্গে বেইমানি করবে না।”

সম্মেলনের প্রধান বক্তা মির্জা আজম বলেন, “বিএনপি আজ প্রকাশ্যে প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে। তারা বলে, খালেদা জিয়া নাকি প্রথম মহিলা মুক্তিযোদ্ধা। অথচ মুক্তিযুদ্ধের সময় তিনি ক্যান্টনমেন্টে ছিলেন। মুক্তিযুদ্ধের সময় তারেক জিয়ার বয়স ছিল ৬-৭ বছর। তাকে বলা হয় শিশু মুক্তিযোদ্ধা। বিএনপির এসব মিথ্যাচারের বিরুদ্ধে যুবলীগকে কাজ করতে হবে এবং উন্নত বাংলাদেশ বিনির্মাণে ভূমিকা রাখতে হবে।”

সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, যুবলীগের সভাপতি শেখ ফজলে শামস্ পরশ, সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল, সংসদ সদস্য ইলিয়াস হোসেন মোল্লা প্রমুখ।

Link copied!