• ঢাকা
  • সোমবার, ১৫ এপ্রিল, ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১,
বেইলি রোডে আগুন

পরিবার নিয়ে ইতালি যাওয়া হলো না মোবারকের


সংবাদ প্রকাশ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: মার্চ ১, ২০২৪, ১১:৩১ এএম
পরিবার নিয়ে ইতালি যাওয়া হলো না মোবারকের
ছবি : সংগৃহীত

রাজধানীর বেইলি রোডের আগুনে পুড়ে একই পরিবারের ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। নিহতরা হলেন ইতালি প্রবাসি সৈয়দ মোবারক (৪২), তার স্ত্রী স্বপ্না (৩৮), মেয়ে সৈয়দা তাশফি (১৭), মেয়ে সৈয়দা নূর (১৫) ও ছেলে সৈয়দ আব্দুল্লাহ।

প্রবাসী মোবারকসহ তার পরিবারের পাঁচজন নিহতের বিষয়টি বৃহস্পতিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) নিশ্চিত করেছেন মোবারকের চাচাতো ভাই সৈয়দ ফয়সাল।

মোবারকের গ্রামের বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার শাহবাজপুর গ্রামে। তিনি ঢাকার মগবাজার এলাকায় থাকতেন।

মোবারকের স্বজনরা জানান, মোবারকের পুরো পরিবার ইতালির ভিসা পেয়েছিল। ১৮ মার্চ তাদের ইতালির উদ্দেশে রওনা দেওয়ার কথা ছিল।

সৈয়দ ফয়সাল বলেন, রাত ৮টার দিকে সৈয়দ মোবারক তার স্ত্রী স্বপ্নাসহ ছেলেমেয়েদের নিয়ে বাসা থেকে বের হন। সেই সময় জানিয়েছিলেন যে তারা একটি রেস্টুরেন্টে খেতে যাচ্ছেন। তারা সেখানে পৌঁছানও। কিন্তু আগুন লাগার পর থেকে তাদের খোঁজ মিলছিল না। 

ভবনটিতে বেশকয়েকটি রেস্তোরাঁ ছিল। ছবি : সংবাদ প্রকাশ

বৃহস্পতিবার রাত পৌনে ১০টার দিকে ভবনটিতে আগুন লাগে। আগুন নেভানোর পর হতাহত ব্যক্তিদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এবং শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে নেওয়া হয়।

রাত দুইটার দিকে স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন, এ ঘটনায় ৪৩ জন নিহত হয়েছেন। তাদের মরদেহ এই দুই হাসপাতালে আছে। এর বাইরে আরও মৃত ব্যক্তি থাকতে পারে।

এ ঘটনায় গুরুতর আহত ৮ জন বার্ন ইনস্টিটিউটে এবং ১৪ জন ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন বলে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান। তিনি বলেন, তাদের সবার অবস্থাও আশঙ্কাজনক।

এ ঘটনায় সর্বশেষ ৪৫ জনের মৃত্যু বিষয়টি নিশ্চিত করেছে মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগের সামনের ঢাকা জেলা প্রশাসনের অস্থায়ী তথ্য ও সহায়তা কেন্দ্র।


 

Link copied!