• ঢাকা
  • রবিবার, ২১ জুলাই, ২০২৪, ৬ শ্রাবণ ১৪৩১, ১৪ মুহররম ১৪৪৫

দেশে আবহাওয়ার আস্বাভাবিক আচরণ কেন


সংবাদ প্রকাশ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: এপ্রিল ৩, ২০২২, ০৩:৩০ পিএম
দেশে আবহাওয়ার আস্বাভাবিক আচরণ কেন

বাংলাদেশের আবহাওয়া আস্বাভাবিক আচরণ করছে বলে মনে করছেন আবহাওয়াবিদরা। এ বছর শীতের পর আবহাওয়া যেমন থাকা দরকার তেমন ছিল না। শীতের প্রভাবও তেমন ছিল না। অস্বাভাবিক আবহাওয়া কৃষিতে প্রভাব ফেলতে পারে বলে তারা জানিয়েছেন।

ভারত মহাসাগরের অস্বাভাবিক অবস্থার প্রভাবেই এমনটি হচ্ছে বলে ধারণা করছেন আবহাওয়াবিদরা। এর প্রভাব কতটা কেমন হবে তার বিভিন্ন দিক নিয়ে গবেষকরা বিশ্লেষণ করছেন। রোববার (৩ এপ্রিল) রাজধানীর আগারগাঁও আবহাওয়া দপ্তরে একটি পর্যালোচনা বৈঠক হয়।

আবহাওয়াবিদ বজলুর রশীদ বলেছেন, দেশের আবহাওয়া বছরের শুরু থেকেই অস্বাভাবিক আচরণ করছে। আমাদের দেশে ডিসেম্বর ও জানুয়ারিতে শীতের প্রভাব বেশি থাকে। কিন্তু শীতকালে তেমন শীত অনুভব হয়নি। এ বছরের ফেব্রুয়ারির প্রথম ও দ্বিতীয় সপ্তাহে দেশের বিভিন্ন স্থানে কালবৈশাখীর মতো ঝড় হয়েছে। একই সঙ্গে শিলাবৃষ্টিও লক্ষ্য করা গেছে। কিন্তু ওই সময়ে এমন ঝড় হওয়ার কথা না। কালবৈশাখীর মতো ঝড় আমাদের দেশে এপ্রিলের মাঝামাঝি থেকে শুরু হয়।

ওই আবহাওয়াবিদ আরও বলেন, ফেব্রুয়ারি মাসে স্বাভাবিকের চাইতে ৫০ শতাংশ বেশি বৃষ্টি হয়েছে। আবার শীতেও অন্য বছরের চেয়ে তুলনামূলক বেশি বৃষ্টি হয়েছে। এখন আবার দেশজুড়ে শুষ্কতা বিরাজ করছে এবং এ সময়ে যেমন বৃষ্টি হওয়ার কথা তেমনটা হচ্ছে না।

কয়েকটি গণমাধ্যম সূত্রে তথ্য পাওয়া গেছে, রংপুরে কয়েকদিন ধরে শীতশীত অনুভূতি হয়। সিলেটের কিছু এলাকায় এখনও মানুষ রাতে কম্বল ব্যবহার করেন। সিলেট অঞ্চলে কিছুটা বৃষ্টি হলেও দেশের বিরাট অঞ্চলজুড়ে কার্যত এখন খরা পরিস্থিতি বিরাজ করছে, যার প্রভাব পড়ার আশঙ্কা আছে কৃষিখাতে। কিন্তু বৃষ্টিপাত কম হলেও যেমন দেশের কৃষিতে এর প্রভাব পড়বে আবার অতিরিক্ত হলেও এর প্রভাব হবে নেতিবাচক। অর্থাৎ ফসলহানির মতো পরিস্থিতিও তৈরি হতে পারে।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের মৃত্তিকা বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক চৌধুরী সারওয়ার জাহান উত্তরাঞ্চলের খরা নিয়ে অনেকদিন ধরে কাজ করছেন।

অধ্যাপক চৌধুরী সারওয়ার জাহান বলেন, “এখন যে বৃষ্টি হওয়ার কথা সেটি হচ্ছে না, আবার বিস্ময়কর হলেও কোথাও কোথাও মাঝে মধ্যে শীতের আমেজ টের পাওয়া যায়।”

Link copied!