• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২০ জুন, ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১, ১৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

জলবায়ু পরিবর্তনে দায়ী পোশাকশিল্প: গ্রেটা থানবার্গ


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: আগস্ট ১১, ২০২১, ০৬:৪১ পিএম
জলবায়ু পরিবর্তনে দায়ী পোশাকশিল্প: গ্রেটা থানবার্গ

ভোগ স্ক্যানডিনেভিয়া ম্যাগাজিনের প্রথম সংখ্যার প্রচ্ছদে স্থান পেয়েছেন সুইডেনের তরুণ পরিবেশবাদী অ্যাক্টিভিস্ট গ্রেটা থানবার্গ। সাক্ষাৎকারে জলবায়ু পরিবর্তনে ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রি তথা পোশাকশিল্পের প্রভাব নিয়ে কঠোর সমালোচনা করেন তিনি।

১৮ বছর বয়সী থানবার্গ বলেন, পরিবেশ বিপর্যয়ে ভূমিকার জন্য ফ্যাশন ব্র্যান্ডগুলোর দায় নেওয়া উচিত। মৌসুমি পোশাকের চাহিদা মেটাতে কম খরচের বেশি উৎপাদনের সমালোচনা করেন তিনি। বলেন, মৌসুমি পোশাকের ব্যাপক হারে উৎপাদন করা হলেও পরে সেগুলোর চাহিদা থাকে না। এসব কাপড়চোপড় ফেলে দেওয়ার ফলে পরিবেশ দূষিত হচ্ছে বলে দাবি করেন তিনি।

রোববার ভোগ স্ক্যানডিনেভিয়ার প্রচ্ছদের ছবিটি টুইট করেন গ্রেটা। ছবিতে বড় একটি ট্রেঞ্চ কোট পরিহিত গ্রেটাকে জঙ্গলের মধ্য একটি ঘোড়াকে আদর করতে দেখা যায়।

এছাড়া সাক্ষাৎকারে গ্রেটা থানবার্গ জানান, গত তিন বছরে তিনি নতুন কোনো পোশাক কেনেননি। তিনি জানান, পরিচিতজনদের কাছে থেকে পুরোনো পোশাক আর জিনিসপত্র নিয়ে ব্যবহার করতে পছন্দ করেন তিনি।

জাতিসংঘের তথ্যমতে, বিশ্বের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ দূষণকারী শিল্প হিসেবে ধরা হয় ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রিকে। বিশ্বের ২০ শতাংশ বর্জ্য উৎপাদন করে এই তৈরি পোশাক খাত। 

এছাড়া প্রতিবছর প্রায় ৯৩ বিলিয়ন কিউবিক লিটার পানি অপচয় হচ্ছে ফ্যাশন ইন্ড্রাস্টিতে, যা প্রায় ৫০ লাখ মানুষের জীবন বাঁচাতে পারে।

Link copied!