• ঢাকা
  • শুক্রবার, ১৯ জুলাই, ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১, ১২ মুহররম ১৪৪৫

ছাড়পত্র পেল ‘অপারেশন সুন্দরবন’


সংবাদ প্রকাশ ডেস্ক
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১২, ২০২২, ০৩:২৭ পিএম
ছাড়পত্র পেল  ‘অপারেশন সুন্দরবন’

মুক্তির তারিখ চূড়ান্ত হয়েছে আগেই। চলছে প্রচারণার তোড়জোড়। এবার তাতে যুক্ত হলো সেন্সর সার্টিফিকেট। রোববার (১১ সেপ্টেম্বর) বিনা আপত্তিতে সেন্সরবোর্ড সদস্যদের কাছ থেকে মুক্তির ছাড়পত্র পেয়েছে দীপংকর সেনগুপ্ত দীপন নির্মিত ২ ঘণ্টা ২১ মিনিট ৩৯ সেকেন্ড দৈর্ঘ্যের ‘অপারেশন সুন্দরবন’।

দীপন জানান, শুধু ছাড়পত্রই পাননি, সঙ্গে পেয়েছেন বোর্ড সদস্যদের কাছ থেকে অকুণ্ঠ প্রশংসা। র‌্যাব ওয়েলফেয়ার কো অপারেটিভ সোসাইটি প্রযোজিত ‘অপারেশন সুন্দরবন’ মুক্তি পাচ্ছে ২৩ সেপ্টেম্বর। এতে অভিনয় করেছেন রিয়াজ, নুসরাত ফারিয়া, সিয়াম, রোশান, মনোজ, তাসকীন প্রমুখ।  

বিশ্ব ঐতিহ্য ও সর্ববৃহৎ ম্যানগ্রোভ বনভূমি সুন্দরবনকে জলদস্যু ও বনদস্যুমুক্ত করার প্রেক্ষাপট নিয়ে তৈরি হয়েছে চলচ্চিত্র ‘অপারেশন সুন্দরবন’। যার সিংহভাগ শুটিং হয়েছে রয়েল বেঙ্গল টাইগারসমৃদ্ধ সুন্দরবনে।

ছবিটি প্রসঙ্গে নির্মাতার বলেন, “‘অপারেশন সুন্দরবন’ পুরোপুরি মূল ধারার সিনেমা। এখানে অ্যাকশন, সাসপেন্স, আবেগ, প্রেম, গান- সব আছে। তবে সেটা অথেনটিক ভাবে এসেছে, সিনেম্যাটিক স্টাইলাইজেশন দিয়ে। গণ মানুষকে কানেক্ট করার সিনেমা এটি। সেই সাথে ক্লাস পিপল যেন পছন্দ করে সেই চেষ্টাও ছিলো। ‘ঢাকা অ্যাটাক’-এ যেটা ছিল। সুন্দরবন দস্যুমুক্ত হবার গল্প নিয়ে নয়, ‘অপারেশন সুন্দরবন’ তৈরি হয়েছে সুন্দরবন দস্যুমুক্ত হওয়াকে উদযাপন করতে। এটি কোনও ডকুমেন্টরি নয়, এটি সম্পূর্ণ বাণিজ্যিক সিনেমা; যেখান ড্রামা-সাসপেন্স-নারী পুরুষের সম্পর্ক, প্রেম-ভালবাসা সব আছে।”

এদিকে ছবির অন্যতম নায়িকা নুসরাত ফারিয়া গভীর সুন্দরবনে টানা শুটিং করার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে গিয়ে বলেন, “মনে পড়ে, এই ছবির শুটিংয়ে যখন আমরা গভীর সুন্দরবনে ইউনিট ফেলি, তখন কোনও নেটওয়ার্ক ছিলো না ফোনে। টানা ৩৫ দিন আমরা বিচ্ছিন্ন ছিলাম দুনিয়া থেকে। এই ৩৫ দিন আমি আমার বাবা-মায়ের সঙ্গেও কথা বলতে পারিনি। তখন আমাদের ইউনিটটাই ছিলো আমার ফ্যামিলি। আমরা এতোটাই আপন হয়ে গেছি, সেই সম্পর্কের টান এখনও আমরা ফিল করি। এই মুভিটা এবং আমার ক্যারেক্টারটা সারাজীবন আমার সাথে থেকে যাবে।”
 

Link copied!