• ঢাকা
  • বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০, ১৮ শা’বান ১৪৪৫

স্বামীকে বেঁধে রেখে স্ত্রীকে দলবদ্ধ ধর্ষণ, গ্রেপ্তার ৬


টাঙ্গাইল প্রতিনিধি
প্রকাশিত: আগস্ট ৪, ২০২৩, ১২:৫০ পিএম
স্বামীকে বেঁধে রেখে স্ত্রীকে দলবদ্ধ ধর্ষণ, গ্রেপ্তার ৬

টাঙ্গাইলের সখীপুরের স্বামীকে বেঁধে রেখে স্ত্রীকে (২৩) দলবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার (৩ আগস্ট) রাতে উপজেলার নয়াকচুয়া গ্রামের চাঁদেরহাট নামের এক বিনোদনকেন্দ্রের পাশের বনে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় রাতেই সখীপুর থানায় মামলা করেন ওই ভুক্তভোগী নারীর স্বামী। এতে সাতজনকে আসামি করা হয়। পুলিশ রাতেই অভিযান চালিয়ে ছয়জনকে গ্রেপ্তার করে। ওই ভুক্তভোগী নারী বর্তমানে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালের ওয়ান-স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে চিকিৎসাধীন।

গ্রেপ্তাররা হলেন বুলবুল আহমেদ (২৪), লাবু মিয়া (২৬), মোহাম্মদ বাবুল (৩০), আসিফ হোসেন (২৩), শফিক আহমেদ (২৫) ও মোজাম্মেল হক (৩০)। তারা সবাই জেলার সখীপুর উপজেলার কচুয়া গ্রামের দক্ষিণপাড়া এলাকার বাসিন্দা।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার বিকেলে ওই দম্পতি নয়াকচুয়া গ্রামের চাঁদেরহাট নামের একটি বিনোদনকেন্দ্রে বেড়াতে যান। সন্ধ্যার দিকে তারা বিনোদনকেন্দ্র থেকে মূল ফটকে বেরিয়ে আসেন। এ সময় আসামিরা তাদের পাশের একটি গজারি বনে ধরে নিয়ে যান। সেখানে তাদের মারধর কারা হয়। একপর্যায়ে রাত সাড়ে আটটার দিকে স্বামীকে বেঁধে রেখে ওই নারীকে ধর্ষণ করেন তারা। ওই নারী অচেতন হয়ে পড়লে অভিযুক্ত ব্যক্তিরা ওই স্থান ত্যাগ করেন।

সখীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল করিম জানান, বৃহস্পতিবার রাত ১টার দিকে ওই দম্পতি থানায় এসে ধর্ষণের বিষয়টি জানান। সঙ্গে সঙ্গেই ওই গ্রামে অভিযান চালিয়ে ঘটনার সঙ্গে জড়িত ছয়জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। ধর্ষণের সঙ্গে জড়িত আরও একজনকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। আসামিদের শুক্রবার সকালে টাঙ্গাইল আদালতে পাঠানো হয়েছে।

Link copied!