• ঢাকা
  • শনিবার, ১৩ জুলাই, ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১, ৬ মুহররম ১৪৪৫

বাকিতে সিগারেট না দেওয়ায় দোকানিকে কুপিয়ে হত্যা


সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি
প্রকাশিত: জুন ২১, ২০২৪, ০৩:৪১ পিএম
বাকিতে সিগারেট না দেওয়ায় দোকানিকে কুপিয়ে হত্যা

সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে বাকিতে সিগারেট না দেওয়ায় এমরান মিয়া (২২) নামে এক মুদি দোকানিকে ধারালো দা দিয়ে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় লিটন মিয়াকে (৩৪) আটক করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (২১ জুন) সকালে এ ঘটনা ঘটে। 

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সকাল ৮টার দিকে উপজেলার তাহিরপুর-বাদাঘাট সড়কের পাশে হোসনারঘাট গ্রামে এমরান মিয়ার দোকানে লিটনের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়। কিছু বুঝে উঠার আগেই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। 

নিহত এমরান হোসনারঘাট গ্রামের সাজিদ মিয়ার ছেলে। নিহতের স্ত্রী ও তিন শিশু সন্তান রয়েছে।

নিহতের পারিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার হোসনারঘাট এলাকায় নিজ বসতঘরের ভেতর থাকা ছোট কক্ষে মুদির ব্যবসা করতেন এমরান মিয়া। একই গ্রামের লিটন মিয়া অনেকদিন থেকে ওই দোকান থেকে বাকিতে সিগারেটসহ নানা পণ্য সামগ্রী ক্রয় করে থাকেন। কিছুদিন ধরে বকেয়া টাকা পরিশোধে গড়িমসি করে আসছিল লিটন। বকেয়া টাকা পরিশোধ না করেই ফের শুক্রবার সকালে ওই মুদি দোকান থেকে বাকিতে সিগারেট নিতে যান লিটন। এমরান বাকিতে সিগারেট না দেওয়ায় ক্ষুব্ধ হয়ে যান লিটন। প্রথমে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে নিজ বাড়ির দিকে ছুটে যান তিনি। বাড়ি থেকে হাতে করে নিয়ে আসেন ধারালো দা। পরে ওই দা নিয়ে লিটন দোকানের ভেতরই কুপিয়ে এমরান মিয়াকে জখম করেন। এতে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় এমরানের।

অভিযুক্ত লিটন মিয়াকে আটক করেছে পুলিশ। ঘটনার পর ভারতে পালিয়ে যাওয়ার পথে বাদাঘাট পুলিশ ফাঁড়ির সদস্যরা তাকে সকাল ৯টার দিকে আটক করেন।  লিটন উপজেলার হোসনারঘাট গ্রামের বিল্লাল মিয়ার ছেলে।

তাহিরপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিন জানান, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর  হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে। 

Link copied!