• ঢাকা
  • সোমবার, ১৫ এপ্রিল, ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১,

শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে ফেরার পথে আ. লীগ কর্মীকে কুপিয়ে হত্যা


রাজশাহী প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২৪, ০৪:১৫ পিএম
শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে ফেরার পথে আ. লীগ কর্মীকে কুপিয়ে হত্যা
নিহত জিয়াউর রহমান। ছবি : সংগৃহীত

রাজশাহীর তানোরে শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে ফেরার পথে জিয়াউর রহমান (৩৬) নামের এক আওয়ামী লীগ কর্মীকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) রাতে উপজেলা সদরে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত জিয়াউর উপজেলার তালন্দ ইউনিয়নের বিলশহর গ্রামের মহির আলি মন্ডলের ছেলে।

বুধবার (২১ ফেব্রুয়ারি) ভোরে উপজেলার বিলশহর গ্রামের একটি সড়কে তার মরদেহ পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয়রা। পরে থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার রাতে তানোর উপজেলা সদরে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের সঙ্গে শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে মোটরসাইকেলে করে নিজ বাড়ি বিলশহর গ্রামের দিকে চলে যান জিয়াউর। বুধবার ভোরে পুকুরে মাছ ধরতে যাওয়ার পথে লোকজন সড়কের পাশে মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেন। সকাল ৮টায় তানোর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করেন। জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারাও ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

পুলিশ জানায়, জিয়াউরকে শক্ত কোনো বস্তু দিয়ে প্রথমে মাথায় আঘাত করা হয়েছে। এরপর মাথায় ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে ধারাল অস্ত্র দিয়ে আঘাত করার পর পেটে কয়েকবার ছুরিকাঘাত করা হয়েছে। অন্য কোথাও হত্যা করে জিয়াউরের মরদেহ বিলশহর গ্রামের উত্তরপ্রান্তে ফেলে দেওয়া হতে পারে। পূর্ব শক্রতার জের ধরে তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। মরদেহের পাশে তার মোটরসাইকেলটিও পড়ে ছিল।

তথ্যটি নিশ্চিত করে তানোর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আনোয়ার হোসেন জানান, পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিনজনকে আটক করা হয়েছে। হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

Link copied!