• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল, ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১, ১৩ শাওয়াল ১৪৪৫

নাটোর-৪ উপনির্বাচন : আ.লীগের মনোনয়ন কিনেছেন ১৭ জন


নাটোর প্রতিনিধি
প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১৩, ২০২৩, ০৪:৫৪ পিএম
নাটোর-৪ উপনির্বাচন : আ.লীগের মনোনয়ন কিনেছেন ১৭ জন

নাটোর-৪ (গুরুদাসপুর-বড়াইগ্রাম) আসনে উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনিত প্রার্থী হতে গত দুই দিনে মনোনয়নপত্র কিনেছেন ১৭ জন নেতা। যার মধ্যে গুরুদাসপুর উপজেলার ৭, বড়াইগ্রাম উপজেলার ৯ এবং নাটোর সদর উপজেলার ১জন প্রার্থী মনোনয়ন কিনেছেন। ধানমন্ডি আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে এসব প্রার্থীরা মনোনয়ন সংগ্রহ করেছেন।

সদ্য প্রয়াত সংসদ সদস্য আব্দুল কুদ্দুসের মৃত্যুতে এ আসনটি শূণ্য হওয়ায় এখানে সংবিধান অনুযায়ী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ঠিক পূর্ব মুহূর্তে উপনির্বাচন আয়োজন করেছে নির্বাচন কমিশন। তফসিল অনুযায়ী নাটোর- ৪ (গুরুদাসপুর-বড়াইগ্রাম) আসনের ভোট গ্রহণ হবে ১১ অক্টোবর। ১৭ সেপ্টেম্বর মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন। ১৮ সেপ্টেম্বর মনোনয়নপত্র বাছাই। মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের বিরুদ্ধে আপিল ১৯ থেকে ২১ সেপ্টেম্বর। আপিল নিষ্পত্তি ২৩ সেপ্টেম্বর। ২৪ সেপ্টেম্বর প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ। প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ ২৫ সেপ্টেম্বর।

দলীয় মনোনয়ন কেনা প্রার্থীরা হলেন- গুরুদাসপুর পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো. শাহ নেওয়াজ আলী, প্রয়াত সংসদ সদস্য আব্দুল কুদ্দুসের মেয়ে নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য কোহেলী কুদ্দুস মুক্তি, জেলা আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ আহম্মদ আলী, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক আনোয়ার হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য সরকার এমদাদুল হক মোহাম্মদ আলী, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম, সাবেক আইন বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য সুব্রত কুমার কুন্ড, বড়াইগ্রাম উপজেলা চেয়ারম্যান ডা. সিদ্দিকুর রহমান পাটোয়ারী, বনপাড়া পৌরসভার মেয়র কে এম জাকির হোসেন, বড়াইগ্রাম উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি এড. আরিফ ইসলাম, সাবেক ছাত্রনেতা এস এম রফিকুল পারভেজ, জেলা আওয়ামী লীগের শিক্ষা ও মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক এস এম আসাদউজ্জামান, বড়াইগ্রাম উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মো. মোয়াজ্জেম হোসেন, গুরুদাসপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মো. আব্দুল কাদের, নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এ কে এম শাহজাহান কবীর, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মো. আতিকুল ইসলাম এবং নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য রতন কুমার সাহা।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে অল্প সময়ের জন্য হলেও সকল নেতাই এই আসনের মনোনয়ন পেতে মরিয়া হয়ে কেন্দ্রে লবিং শুরু করেছেন। মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সমর্থকরা ইতোমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক প্রচারণা শুরু করেছেন। সবাই মনোনয়নের ব্যাপারে আশাবাদী।

এদিকে আসনটিতে জাকের পার্টির পক্ষ থেকে নির্বাচনে অংশগ্রহণের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। মাঠে রয়েছেন জাতীয় পার্টির নেতা আলাউদ্দিন মৃধা। বিএনপি নির্বাচনের প্রতিদ্বন্দ্বিতায় না থাকায় আওয়ামী লীগের চেয়ে তুলনামূলক দুর্বল প্রতিদ্বন্দ্বী থাকায় মনোনয়ন পেতে মরিয়া সকল প্রার্থী।

উল্লেখ্য, গত বুধবার (৩০ আগস্ট) সকাল ৭টার দিকে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় নাটোর-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুসের মৃত্যুতে আসনটি শূন্য হয়। পরে গত ৩ সেপ্টেম্বর সংসদ সচিবালয়ের সচিব কেএম আব্দুস সাত্তার স্বাক্ষরিত গেজেটে আসনটি শূন্য ঘোষণা করা হয়।

Link copied!